এম. মনিরুজ্জামান, রাজবাড়ী প্রতিনিধি : আশ্রয়ন প্রকল্পে সরবরাহ করা ইটের টাকা চাওয়ায় ইটভাটা মালিককে মারপিট করার পর উল্টো আরো ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।

এ অভিযোগে রাজবাড়ীর ৪ নং আমলী আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন জেলার কালুখালী উপজেলার বড়কলকলিয়া গ্রামের নাদের আলী মন্ডলের ছেলে এবং বালিয়াকান্দির বারমল্লিকা এলাকায় দীর্ঘ ৫ বছর ধরে জমি লিজ নিয়ে মেসার্স রাবেয়া এন্ড বিক্স ইটভাটার স্বত্ত্বাধিকারী মোঃ নাসির উদ্দিন। ওই মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান ছাড়াও আরও তিন জনকে আসামী করা হয়েছে।

ইটভাটা মালিক মোঃ নাসির উদ্দিন অভিযোগে বলেন, গত ১৪ সেপ্টেম্বর দুপুর আড়াইটার দিকে প্রথম দফায় ইটভাটা বন্ধ করিয়া দিতে বলে এবং একই দিন রাত ১টার দিকে ভাটার ৩টি সিসি ক্যামেরা ভেঙ্গে ফেলে। খবর পেয়ে বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে ১৬ সেপ্টেম্বর আসামীরা ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। এ নিয়ে গত ১৯ সেপ্টেম্বর রাজবাড়ীর ৪ নং আমলী আদালতে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলাটি আদালতের বিচারক সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

ইটভাটা মালিক মোঃ নাসির উদ্দিনের বড় ভাই নজরুল ইসলাম বলেন, তাদের ভাটা থেকে ইউপি চেয়ারম্যান ওই ইউনিয়নে সরকারীভাবে নির্মাণ করা আশ্রয়ন প্রকল্পের জন্য ইট নেন। যে ইটের বকেয়া থাকা ৩ লাখ ৫৮ হাজার ৯শত ২০ টাকা দিচ্ছেন না ইউপি চেয়ারম্যান। ওই টাকা চাওয়ায় তাকে প্রকাশ্য মারপিট করেছে চেয়ারম্যান। এ নিয়ে গত ৮ সেপ্টেম্বর তারা বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। ওই অভিযোগের পর গত মঙ্গলবার চেয়ারম্যান আহম্মদ আলীকে তার কার্যালয়ে শুনানীর জন্য ডাকেন। তবে চেয়ারম্যান ইউএনও অফিসে আর যান নাই।