চুনতীর শাহছাহেব কেবলার ৪০তম ওফাৎবার্ষীকি উপলক্ষে ইছালে ছওয়াব মাহফিলের সমাপনি বক্তার বক্তব্য রাখছেন বয়োজ্যেষ্ঠ আলেমে দ্বীন, শাহছাহেব কেবলার খাদেম ও মুতাওয়াল্লী কমিটির সহসভাপতি মাওলানা কাজি নছির উদ্দিন।                 

আরফাত বিপ্লব, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) : আউলিয়াদের কারামত সত্য। এটা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের মৌলিক আকিদার একটা গুরুত্বপুর্ণ অংশ। আমরা বিস্ময়করভাবে লক্ষ্য করছি চুনতীর বুকে অর্ধশতাব্দিকাল ধরে অত্যন্ত সফলতার সাথে ১৯দিন ব্যাপী সীরাতুন্নবী স. মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। কখনো এর ব্যত্যয় ঘটেনি। এ উপলক্ষে প্রতিবছর এখানে লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসলমানের মিলনমেলা হয়। দেশের প্রখ্যাত ওয়ায়েজগন তাশরিফ আনেন। দ্বীনি এলম চর্চা করেন। অনেক অমুসলিমও ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। আবার সাবর জন্য প্রতিদিন তাবাররুকের ব্যবস্থাও হয়। এই মাহফিল প্রবর্তন করেছিলেন আশেকে রসুল আলহাজ্ব হাফেজ আহমদ প্রকাশ শাহছাহেব রহ.। এটা তাঁর বিস্ময়কর কারামাতের অংশবিশেষ।

চুনতীর শাহছাহেব কেবলার ৪০তম ওফাৎবার্ষীকি উপলক্ষে ইছালে ছওয়াব মাহফিলের সমাপনি বক্তার বক্তব্যে মরহুম শাহ ছাহেবের ঘনিষ্ঠ খাদেম, মুতাওয়াল্লী কমিটির সহসভাপতি মাওলানা কাজী নাছির উদ্দিন উপরোক্ত কথা বলেন।

এ উপলক্ষে চুনতী সীরাত প্রাঙ্গনে দিনভর নানা কর্মসূচি পালিত হয়েছে। খতমে কোরআন ও খতমে বোখারী, হযরত শাহ্ ছাহেব কেবলার মোবারক জীবনী আলোচনা, মিলাদ ও মুনাজাত।

মরহুম শাহ সাহেবের দৌহিত্র মাওলানা হাফিজুল ইসলাম আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী।

উকিলের পাড়া জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোহাম্মদ মুসা তুরাঈনের পরিচালনায় মাহফিলে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন চুনতী হাকিমিয়া কামিল মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা হাফিজুল হক নিজামী।

আলোনোয় আরো অংশ নেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের সহকারি অধ্যাপক ডা. মাহমুদুর রহমান, মাওলানা হেলাল উদ্দিন, মাওলানা জমিল উদ্দিন, সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা মাহমুদুল হক, মাওলানা রুহুল কুদ্দুম আনোয়ারি ও মাওলানা বদরুদ্দিন সা’দী প্রমুখ। মাহফিলে হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসল্লী অংশ নেয়।