এম মনিরুজ্জামান, রাজবাড়ী প্রতিনিধি : ঘন কুয়াশার কারণে প্রায় ১০ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের অন্যতম প্রবেশদ্বার রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে।

রোববার (১৫ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৭টা থেকে ফেরি চলাচল শুরু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো. সালাহউদ্দিন।

এর আগে পদ্মা নদীতে কুয়াশার ঘনত্ব বেড়ে গেলে শনিবার (১৪ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ৯টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয় ঘাট কর্তৃপক্ষ।

জানা যায়, গতকাল শনিবার সন্ধ্যার পর থেকেই পদ্মা নদীর অববাহিকা কুয়াশাচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কুয়াশার পরিমাণও বাড়তে থাকে। রাত ৯টার পর দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে আসা আমানত শাহ ফেরিটি মাঝ নদীতে পৌঁছালে সামনে ঘন কুয়াশায় কিছু দেখতে না পেরে পাটুরিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে আসা অন্য একটি ফেরির সঙ্গে ধাক্কা লাগে। তবে এতে কোন ক্ষয়ক্ষতি হয় নাই।

এ ছাড়া রাত সাড়ে ৯ টার দিকে ঘন কুয়াশায় ফেরির মার্কিং বাতির আলো অস্পষ্ট হয়ে আসায় দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে চলাচলকারী রজনীগন্ধা ও ফরিদপুর নামের দুটি ফেরি যাত্রী ও যানবাহন নিয়ে মধ্য পদ্মায় আটকা পড়ে। তাই দুর্ঘটনা এড়াতে রাত সাড়ে ৯টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো. সালাহউদ্দিন বলেন, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে পদ্মা নদীতে কুয়াশার ঘনত্ব কমে আসায় প্রায় পৌনে ১০ ঘণ্টা পর পুনরায় ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

দীর্ঘ সময় ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় ঘাট এলাকায় কিছু যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। অপেক্ষাকৃত যানবাহনগুলোকে সিরিয়াল অনুযায়ী পার করা হচ্ছে। বর্তমানে এই নৌরুটে ১৩টি ফেরি চলাচল করছে।