ঘিওর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি : মানিকগঞ্জের ঘিওরে আলোচিত হয়রত আলী হত্যা মামলায় দুই আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। একই সাথে প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে তিন মাসের সশ্রম কারাদন্ডও প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক সাবিনা ইয়াসমিন আসামীদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষনা করেন।

দন্ডিতরা হলেন, মানিকগঞ্জের ঘিওরের পুখুরিয়ার মফিজউদ্দিনের ছেলে ইফতে আরিফ (৩৭) এবং শিবালয়ের অন্যায়পুরের মৃত নগেন্দ্র সূত্রধরের ছেলে মন্টু সূত্রধর (৪৫)।

এজহার সূত্রে জানা যায়, জমি সংক্রান্ত জেরে ২০১২ সালের ৬ জুলাই দুপুরে হয়রত আলীকে আসামী ইফতি আরিফ, মন্টু সূত্রধর ও বাসুদেব শর্মা ধারালো ছুরি দিয়ে গুরুত্ব আহত করে পালিয়ে যায়। তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় হয়রত আলী।

এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই আলমগীর হোসেন বাদি হয়ে ঘিওর থানায় ওই তিনজনের নামে হত্যা মামলা করেন। তৎকালিন ঘিওর থানার এসআই ও মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা আব্দুস সাত্তার ২০১৪ সালের ১২ আগষ্ট তিনজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন এবং বিচারিক আদালতের ১১ জনের স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামীর উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান করেন।

মামলা চলাকালিন সময়ে মামলার আসামী বাসুদেব শর্মা মারা যায়, তাই তাকে মামলা থেকে বাদ দেওয়া হয়।

মামলার রায়ে রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী এপিপি মথুরনাথ সরকার সন্তোষ প্রকাশ করলেও আসামী পক্ষের আইনজীবী জহিরুল ইসলাম উচ্চ আদালতে আপিলের কথা জানিয়েছেন।