বাগমারা (রাজশাহী) প্রতিনিধি : স্বামীকে চাকরি না দেওয়ায় বাগমারায় আলোর বাংলা ফাউন্ডেশনের পরিচালকসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা করেছেন ওই প্রতিষ্ঠানের এক সাবেক নারী কর্মী।

জানা গেছে, ওই প্রতিষ্ঠানে এক নারীকে ৩০ হাজার টাকা বেতন দেওয়ার প্রলোভন দিয়ে দশ লক্ষ টাকার বিনিময়ে শেয়ার হোল্ডার প্রদান করা হয়। এর কিছু দিন পর ওই নারী কর্মী অপর এক শেয়ার হোল্ডারের সঙ্গে প্রেমে জড়িয়ে পড়ে তারা গোপনে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়।

বিষয়টি জানাজানি হলে ওই নারী কর্মীকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। এরপর সে তার স্বামীকে তার পদে নিয়োগ দেওয়ার জন্য দাবি জানায়। কিন্তু পরিচালক তাতে রাজি না হওয়ায় তার দেওয়া টাকা ফেরত নেওয়ার জন্য শনিবার দুপুরে ওই নারী কর্মী স্বামীকে সঙ্গে নিয়ে অফিসে যায়।

এ সময় ওই প্রতিষ্ঠানের ইনভেস্টার রফিকুল ইসলাম ও ফিরোজ নামে এক কর্মী তার স্বামীকে অফিসের বাইরে ধরে রাখে আর পরিচালক আজিজুল হক তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন।

তবে প্রতিষ্ঠানের পরিচালক আজিজুল হক দাবী করেন, ওই নারী কর্মী এক শেয়ার হোল্ডারের প্রেমে পড়ে গোপনে বিয়ে করায় এবং শো রুমের এক নারী কর্মীকে নিয়ে মিথ্যা অপবাদ দেওয়ায় তাকে শোকজ করা হয়। এরপর সে তার স্বামীকে তার পদে নিয়োগ দেওয়ার জন্য দাবি করলে তা না দেওয়ায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করেছে।

বাগমারা থানার উপ-পরিদর্শক এসআই বদিউজ্জামান বলেন, এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।