নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর সদর উপজেলায় স্ত্রীকে আত্মহত্যায় প্ররোচণার মামলায় এক উপ-পরিদর্শক (এসআই)কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত উপপরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান জাবেদ (৩৬) সদর উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের ৫নম্বর ওয়ার্ডের জামালপুর গ্রামের ফরাজি বাড়ির আবুল কাশেমের ছেলে। সে চট্টগ্রাম জেলার আরআরএফ এ সংযুক্ত রয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ জুন) দুপুর ২টার দিকে সদর উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের জামালপুর গ্রামের মনতরাব ফরাজি বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম।

তিনি আরো জানান, গ্রেপ্তারকৃত আসামির বিরুদ্ধে স্ত্রীকে আত্নহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে চট্রগ্রামের হালিশহর থানায় মামলা হয়েছে। ওই মামলায় তাকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করেছে সুধারাম থানার পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে হালিশহর থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে পারিবারিক ভাবে সুধারাম থানার বিনোদপুর গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলের সাথে বিয়ে হয় কলির। তারা স্বামী-স্ত্রী এক ছেলে এক মেয়েকে নিয়ে চট্রগ্রামের হালিশহরে একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করত। তাঁর স্বামী বদ মেজাজী হওয়ায় কারণে-অকারণে স্ত্রীকে মারধর করত।

এ ছাড়া তার স্বামীর সাথে তার বন্ধু বাদশার স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে বলে সে তার পিতাকে জানায়। পরে গত ২৫ মার্চ শুক্রবার সকালের দিকে চট্টগ্রামের হালিশহরের শান্তিবাগের ৮ নং রোড়ের হক সাহেবের বাসায় এসআই স্বামীর প্ররোচনায় ফাতেমা আক্তার কলি (২৫) আত্মহত্যা করে।

নিহত কলির নানা আব্দুল হক মেম্বার জানান, হাসপাতালের মর্গে থেকে লাশ আনতে গিয়ে নিহত কলির শরীরে আঘাতের চিহৃ রয়েছে।

এ ঘটনায় ২৭ মার্চ সকালে নিহতের পিতা আহছান উল্যাহ বাদী হয়ে তাঁর মেয়ে আত্মহত্যায় প্ররোচনা ও সহায়তার দায়ে তাঁর স্বামী ও তাঁর বন্ধুসহ ৫ জনকে আসামি করে চট্রগ্রামের হালিশহর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-৩০।