নোয়াখালী প্রতিনিধি : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের নিজ উপজেলা কোম্পানীগঞ্জে বিবাদমান দুই গ্রুপ পৃথক পৃথক নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাত বার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবস পালন করেছে।

সোমবার (১৫ আগস্ট) দুপুর পৌনে ১টার দিকে বসুরহাট পৌরসভা হলরুম ও বসুরহাট ডাক বাংলোর হলরুমে দুটি গ্রুপ পৃথক এ কর্মসূচির আয়োজন করে। একই সময়ে ও কাছাকাছি স্থানে কর্মসূচির কারনে অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি এড়াতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন ছিল।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের তিন ভাগনের নেতৃত্বাধীন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খান ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল সমর্থিত উপজেলা আওয়ামী লীগের একাংশ দিবসটি উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামী লীগের ব্যানারে দুপুর পৌনে ১টার দিকে উপজেলা পরিষদের সামনে থেকে বসুরহাট বাজারে শোক র‌্যালি বের করে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার বসুরহাট ডাকবাংলোয় গিয়ে আলোচনা সভা, মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও মধ্যাহৃ ভোজের আয়োজন করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খান, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল, উপজেলা আওয়ামী লীগের মুখপাত্র মাহবুবুর রশীদ মঞ্জু, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক নাজিম, সেতুমন্ত্রীর ভাগনে স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদ সদস্য ফখরুল ইসলাম রাহাত, রামপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সিরাজীস সালেকীন রিমন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম শাহীন,উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহ ফরহাদ লিংকন প্রমূখ।

অপরদিকে ওই একই ব্যানারে সেতুমন্ত্রীর ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জার নেতৃত্বাধীন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের অপর অংশ দিবসটি উপলক্ষে শোক র‌্যালি ও আলোচনার সভা ও মধ্যাহৃ ভোজের আয়োজন করে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন,কাদের মির্জা ঘোষিত উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইস্কান্দার হায়দার চৌধুরী বাবুল,সহ-সভাপতি হাসান ইমাম বাদল, সাধারণ সম্পাদক মো.ইউনুছ,সিরাজপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন মিকন প্রমূখ।