শেখ মোহাম্মদ আলী, সুন্দরবন অঞ্চল প্রতিনিধি : বাগেরহাটের শরণখোলায় সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জে বাঘের সাথে লড়াই করে ক্ষত নিয়ে লোকালয়ে ফিরে এলো একটি মহিষ।

সোমবার বিকেলে পূর্ব সুন্দরবনের ধান সাগর ষ্টেশনের কলমতেজী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মহিষটির ডান পায়ে বাঘের কামড় ও বুকের নীচে নখের থাবার চিহ্ন রয়েছে। মহিষটিকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

মহিষের মালিক উপজেলার পশ্চিম রাজাপুর গ্রামের সোবাহান পহলানের ভাই মোঃ রুহুল আমীন পহলান জানান, দুদিন আগে সুন্দরবনের কলমতেজী এলাকায় ভোলা নদীর চরে ঘাস খাচ্ছিলো কয়েকটি মহিষ এমন সময় একটি বাঘ পিছনে থাকা এই গাভী মহিষটির উপর আক্রমণ করে।

এ সময় উভয়ের মাঝে অনেকক্ষণ ধ্বস্তা-ধ্বস্তি হয়। পরে অন্য মহিষ ঘটনাস্থলে ছুটে আসলে বাঘটি বনের মধ্যে পালিয়ে যায়। রক্তাক্তাবস্থায় বাড়ি ফিরে আসে মহিষটি। বাঘের আক্রমনে চাঁন্দা নামের গাভী মোষটির ডান পায়ে ও বুকের নিচে ক্ষতের সৃষ্টি হয়। মহিষটিকে বাড়িতে বেধে রেখে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। মহিষটির হাঁটাচলা দেখে আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

স্থানীয় রাজাপুর গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ পান্না মিয়া জানান, সুন্দরবনের তীরবর্তী ছোট খাল পাড়ি দিয়ে স্থানীয় লোকজনের গরু-মহিষ বনের মধ্যে ঘাস খেতে যায়। তখন বাঘের আক্রমনের শিকার হয়। এ ছাড়া লোকালয়ে এসেও বাঘ হানা দিয়ে গরু মহিষ হত্যা করে। এলাকাবাসী বাঘ আতংকে রয়েছে।

পুর্ব সুন্দরবন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ এনামুল হক জানান, মহিষটি সুন্দরবনের মধ্যে বাঘের আক্রমনের শিকার হয়েছে কিনা তা তদন্ত করে দেখা হবে। মহিষ বনের মধ্যে প্রবেশের প্রমান পাওয়া গেলে মহিষের মালিককে চিন্হিত করে মামলা দেয়া হবে।