খোলাবার্তা২৪ ডেস্ক : পুরো ভারত জুড়ে করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কথা মাথায় রেখে বলিউডের অনেক ছবির মুক্তিই আপাতত স্থগিত রাখা হচ্ছে। এপ্রিল মাসে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল ‘সূর্যবংশী’। আপাতত ছবিটির মুক্তি স্থগিত।

সালমান খান তাঁর ‘রাধে’র মুক্তিও পিছিয়ে দিতে পারেন। এ বছর ঈদে সিনেমা হলে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল প্রভু দেবা পরিচালিত ‘রাধে: ইয়োর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই’ ছবিটি।

সম্প্রতি কবীর বেদির বইয়ের প্রচ্ছদ লঞ্চ উপলক্ষে করা ফেসবুক লাইভে সালমান খান বলেছেন, ছবির মুক্তি পরের বছর ঈদ পর্যন্ত পিছিয়ে যেতে পারে। তিনি বলেন, ‘‘আমরা এখনও চেষ্টা করছি যাতে এ বছর ঈদেই রিলিজ় হয়। কিন্তু এ ভাবে সংক্রমণ বাড়তে থাকলে পরের বছর ঈদ পর্যন্ত ছবির মুক্তি পিছিয়ে দিতে হবে। মানুষ যদি মাস্ক পরেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখেন, তা হলে দেশে করোনা সংক্রমণ কমতে পারে। সে ক্ষেত্রে এ বছর ঈদে ছবিটি মুক্তি পেতে পারে।’’

সালমান আরো বলেন, ‘‘দেশের নাগরিকরা যদি কথা না শোনেন, নিয়ম ভাঙেন, করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকে, তা হলে শুধু হলমালিকরাই সমস্যায় পড়বেন না, দিনমজুরদেরও ভোগান্তি বাড়বে। আবার আমরা আগের পরিস্থিতিতে ফিরে যাব।’’

করোনার জেরে দীর্ঘ দিন বন্ধ ছিল সিনেমা হল। ওটিটিতে ছবি মুক্তির ধারা ছিল অব্যাহত। সিনেমা হল খোলার পরে জানুয়ারি মাসে দেশের বিভিন্ন রাজ্য থেকে ফিল্ম এগজ়িবিটররা একযোগে সালমান খানকে চিঠি লেখেন তাঁর ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে রিলিজ় করার জন্য। আশা ছিল, সালমানের ছবিই আবার দর্শক টানবে প্রেক্ষাগৃহে। সালমান খানও কথা দিয়েছিলেন, এ বছর ঈদে সিনেমা হলেই ‘রাধে’ মুক্তি পাবে। কিন্তু সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে সেই সম্ভাবনা ধোঁয়াশায়।

অন্য দিকে তামিল পরিচালক শঙ্কর ও দক্ষিণী সুপারস্টার রামচরণের পরবর্তী ছবি ‘আরসি১৫’-এ দেখা যেতে পারে সালমান খানকে। ছবিতে এক পুলিশের ভূমিকায় অভিনেতাকে কাস্ট করার কথা ভাবছেন শঙ্কর। পরিচালকের মতে, সালমানের উপস্থিতিই দর্শক টানতে যথেষ্ট। তবে সালমান এখনও এ ছবির জন্য সম্মতি দেননি। – আনন্দবাজার