ময়মনসিংহ অফিস : সার কেলেঙ্কারির অভিযোগে দুদকের দায়ের করা মামলায় কিশোরগঞ্জ জেলার ভৈরবের বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশনের (বিএডিসি) দুই কর্মকর্তাকে যাবজ্জীবন এবং তিনজন ডিলারকে অর্থদন্ডসহ সাত বছরের কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন ময়মনসিংহের জেলা বিশেষ জজ আদালত।

রোববার ময়মনসিংহের বিশেষ জেলা দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. শাহাদত হোসেন এ আদেশ দেন।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কাজী শফিকুল হাসান জানান, ২০১৪ সালের ১৬ নভেম্বর কিশোরগঞ্জের ভৈরবে মজুদ সার না থাকায় ও সারের ঘাটতি হওয়ায় বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশনের (বিএডিসি-সার) যুগ্ম পরিচালক মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ শেখ বাদী হয়ে দুদকে একটি মামলা দায়ের করেন।

২০১৫ সালে ১০ জুলাই মামলাটির তদন্ত শেষে দুদক প্রতিবেদনসহ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ১৭ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ ও শুনানি শেষে বিজ্ঞ বিচারক কিশোরগঞ্জ বিএডিসি’র (সার) সাবেক যুগ্ম পরিচালক আহাদ আলী ও ভৈরব বিএডিসি’র (সার) ভারপ্রাপ্ত সহকারি পরিচালক রেজাউল করিমকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডসহ প্রত্যেককে ২২ কোটি টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো তিন বছর কারাদন্ড এবং বিএডিসি’র ডিলার নরসিংদীর হাজিপুর নয়াপাড়ার মৃত ফজলু মিয়ার ছেলে মো. হারিছুল হক, বেলাবোর মো. মজিবুর রহমান খানের ছেলে সারোয়ারুল আলম সবুজ ও কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রামের বাঙ্গালপাড়ার মৃত চুনীলাল রায়ের ছেলে লিটন রায়কে সাত বছর করে কারাদ-সহ প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো তিনমাস কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন।

আসামি পক্ষের আইনজীবী মোহাম্মদ ফজলুল হক ও মকবুল হোসেন ভূঁইয়া মামলাটি পরিচালনা করেন।