প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন, সাভার মডেল কলেজের পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাজহারুল ইসলাম।

সাভার (ঢাকা) প্রতিনিধি : নানা কর্মসুচীর মধ্যে দিয়ে গতকাল সোমবার সাভারে পালিত হয়েছে ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী। এ উপলক্ষে দুপুরে সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে উপজেলা চত্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

এ সময় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা.এনামুর রহমান,উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মিসেস হাসিনা দৌলা, সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যন ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম রাজীবসহ দলীয় নেতাকর্মী ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারাও ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে উপজেলার হলরুমে ও সাভার পৌরসভায় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত করা হয়। এ ছাড়াও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সাভার মডেল কলেজে ‘জাতীয় শোক দিবস’ উপলক্ষে আলোচনা সভা, দোয়া অনুষ্ঠান, চিত্রাঙ্কন, রচনা ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ দিলারা খানমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাভার মডেল কলেজের পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও সাভার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাজহারুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ ইসমাইল হোসেন। এ সময় শিক্ষকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কলেজের ভূগোল বিষয়ের প্রভাষক ও শিক্ষক প্রতিনিধি মোঃ আলী হোসেন, প্রভাষক, মোহাম্মদ হোসেন, মোঃ মনসুর আলী, আব্দুল আউয়াল খান প্রমুখ। শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মিথিলা ঘোষ, ফারজানা ইসলাম রিমি প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে চিত্রাঙ্কন, রচনা ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সপরিবারে নিহত শহীদদের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।


শাহজাদপুরে বঙ্গবন্ধু’র ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত

আবুল কাশেম, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি : জেলার শাহজাদপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস। স্থানীয় এমপি, উপজেলা পরিষদ, উপজেলা আওয়ামীলীগ, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজাদপুর পৌরসভা, শাহজাদপুর প্রেস ক্লাবসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, পেশাজীবী সংগঠন এবং ব্যবসায়ী সংগঠনের পক্ষ থেকে দিবসটি পালন করা হয়। সকলের পক্ষ থেকে সকাল ৯ টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অপর্ণনের মাধ্যমে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। পুষ্পস্তবক শেষে উপজেলা প্রশাসন উপজেলা পরিষদ শহিদ স্মৃতি সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম।

বক্তব্য রাখেন- উপজেলা আওয়ামীরীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি চয়ন ইসলাম, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রফেসর আজাদ রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) লিয়াকত সালমান, আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক শেখ আব্দুল হামিদ লাবলু, মুক্তিযোদ্ধা বিনয় কুমার পাল, ভাইস চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী, থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম মৃধা প্রমূখ। বক্তারা বলেন, যে বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ নামের এ দেশটি সৃষ্টি হতো না, সেই বঙ্গবন্ধুকে ঘাতকেরা স্বপরিবারে হত্যা করলো যা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ঘৃণিত হত্যাকান্ড। অনুষ্ঠান শেষে বঙ্গবন্ধুর উপরে রচনা প্রতিযোগিতার ৬ জন এবং চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার ৩ জন শিক্ষার্থীকে পুরষ্কার দেয়া হয়।

এই উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে থেকেও দলীয় কার্যালয় থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়। জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত, কাল পতাকা উত্তোলন এবং কালো ব্যাচ ধারণের মাধ্যমে দিনের কর্মসূচির সূচনা হয়। সকাল ১০ টায় আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব ও সাগত বক্তব্য রাখেন, সাবেক এমপি চয়ন ইসলাম।

বক্তব্য রাখেন- উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আব্দুল হামিদ লাবলু, কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. সাজ্জাত হায়দার লিটন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শাহজাদপুর প্রেস ক্লাবের সেক্রেটারী মুস্তাক আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ কাজল, স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মারুফ হোসেন সুনাম প্রমূখ। এ সময় কাঙ্গালী ভোজেরও আয়োজন করা হয়। উল্লেখ্য, ১৩টি ইউনিয়নের আওয়ামী দলীয় কার্যালয়েও কাঙ্গালী ভোজের আয়োজন করা হয়।

অপরদিকে, শাহজাদপুর পৌরসভার পক্ষ থেকে পৌরসভা কার্যালয়ে পতাকা উত্তোলন, কালো ব্যাচ ধারণ ছাড়াও বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠপুত্র শেখ কামালের নামে স্থাপিত ‘শেখ কামাল ম্যুরাল’এর উদ্বোধন করা হয়। দুপুর ১২ টায় শাহজাদপুর পৌরসভা থেকে কয়েকশত দুঃস্থ্য মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। পরে বগুড়া-নগরবাড়ী মহাসড়কের পাশে শাহজাদপুর পৌরসভার শুরু (উত্তর সীমানা) পাড়কোলা নামক স্থানে স্থাপিত এ ম্যুরালের উদ্বোধন করেন, মরহুম শেখ কামালের খালাতো ভাই এবং শাহজাদপুর পৌরসভার মেয়র মনির আক্তার খান তরু লোদী। এ সময় মেয়র তরু লোদী বলেন, ঘাতকদের বুলেটের আঘাতে নিহত আমার রক্তের সম্পর্কীয় ভাই শেখ কামালের নামে একটি ম্যুরাল স্থাপন করতে পারলাম বলে নিজেকে ধন্য মনে করছি। এসময় পৌসভার কাউন্সিলরবৃন্দ ও দলীয় নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

তাছাড়াও, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে পক্ষ থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবস যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হয়েছে। সকাল ১০:৩০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্ আজম।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার জনাব মোঃ সোহরাব আলী, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মোঃ ফখরুল ইসলামসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বিকাল ৪:০০টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবন ১-এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। আলোচনা সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তৃতা করেন, পাবনা-১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য এবং সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব অ্যাড. শামসুল হক টুকু। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্ আজম।