জামালপুর প্রতিনিধি : জামালপুরে সাংবাদিকদের পিটিয়ে চামড়া তুলে ফেলা ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার হুমকী দিয়েছে পুলিশ সুপার নাছির উদ্দিন আহমেদ। এ ঘটনার প্রতিবাদে জামালপুরে সাংবাদিকদের সকল সংগঠন ঐক্যবদ্ধ হয়ে মানববন্ধন করেছে।

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় শহরের দয়াময়ী চত্বরে ঘন্টাব্যাপী ওই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে ২৪ ঘন্টার মধ্যে জামালপুরের পুলিশ সুপার নাছির উদ্দিন আহমেদের প্রত্যাহার দাবি করে সাংবাদিকরা বলেন, শুক্রবার রাতে পুনাক মেলা সম্পর্কে সাংবাদিকদের অবহিত করার জন্য ডাকেন পুলিশ সুপার। এ সময় জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা ও সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান উপস্থিত না হওয়ায় পুলিশ সুপার ক্ষিপ্ত হয়ে প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে ধরে এনে পিটিয়ে চামড়া তুলে নেওয়ার হুমকী দেন।

এ ঘটনায় জামালপুরে কর্মরত সকল সাংবাদিকরা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদার সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম-মুক্তিযুদ্ধ ‘৭১, জেলা শাখার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রশীদ, জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শোয়েব হোসেন, সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম, মোস্তফা মনজু, ফজলে এলাহী মাকাম, বজলুর রহমান, জাহিদ হাবিব, মুখলেছুর রহমান লিখন, আনোয়ার হোসেন মিন্টু, নুরুল হক জঙ্গি, শওকত জামান, সুলতান আলম, মাহফুজুর রহমান, শাহ জামাল প্রমুখ।

মানববন্ধনে সঞ্চালনা করেন জামালপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান।

মানববন্ধনে সাংবাদিকদের পাশাপাশি মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।