সরিষাবাড়ী প্রতিনিধি : সরিষাবাড়ীতে বুধবার সন্ধ্যায় এক স্কুলছাত্রী বাবার উপর অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করার অভিযোগ উঠেছে।

সরিষাবাড়ী হাসপাতাল ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, আঁখি আক্তার (১২) তার বাবার সাথে ঝগড়ার কারণে মানসিকভাবে গত দুইদিন যাবৎ বিপর্যস্ত ছিল। ঘটনার দিন বুধবার বিকেলে গ্রামের সাথীদের সাথে খেলতে যায় আঁখি আক্তার। সন্ধ্যার পর বাড়ীতে এসে তার নিজের ঘরে ঢুকে দরজা লাগিয়ে দেয় সে। এরপর নিজের ওড়না গলায় পেঁচিয়ে ঘরের ধরনার সাথে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করে আঁখি। বাড়ীর লোকজন টের পেয়ে ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে ডুকে তাকে ফাঁসিতে ঝুলানো দেখে।

আঁখির ফুপি রত্না খাতুন জানান, সন্ধ্যার পর আঁখি আক্তারকে দ্রুত সরিষাবাড়ী হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আঁখি আক্তার মাটিকামারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী বলে জানা গেছে।

সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত কর্মকর্তা ডাঃ গাজী রফিকুল হক জানান বিষয়টি তাৎক্ষণিক ভাবে পুলিশকে জানানো হয়েছে।

সরিষাবাড়ী থানা পুলিশ পরিদর্শক মীর রকিবুল হক জানান, সংবাদ পেয়েছি। লাশ উদ্ধারের জন্য পুলিশ পাঠানো হয়েছে।