অভিযুক্ত

জামালপুর প্রতিনিধি : জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

গত শুক্রবার গভীর রাতে উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের লোকনাথপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সরিষাবাড়ী উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের লোকনাথপুর গ্রামের বাসিন্দা নির্যাতনের শিকার ওই স্কুলছাত্রী একই ইউনিয়নের স্থানীয় একটি স্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। স্কুলে আসা-যাওয়ার সময় একই গ্রামের সৌদি আরব প্রবাসী আব্দুল কাদেরের ছেলে কনক হাসান (২৫) প্রতিদিন ওই স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে আসছিলো।

এ নিয়ে স্কুলছাত্রীর বাবা তাকে নিষেধ করলে সে এতে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। পরে শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে বসতঘরের সিঁধ কেটে ঢুকে মুখ বেঁধে বখাটে কনক জোরপূর্বক ধর্ষণ করে ওই স্কুলছাত্রীকে। এ সময় নির্যাতিতা স্কুলছাত্রীর চিৎকারে তার মা-বাবা পাশের কক্ষ থেকে দৌড়ে আসলে কনক সিঁধ দিয়েই পালিয়ে যায়।

সরিষাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ মহব্বত কবির জানান, ধর্ষণের ঘটনায় ভুক্তভোগীর পিতা গতকাল শনিবার রাতে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই স্কুলছাত্রীকে আজ রোববার সকালে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। আসামীকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চলছে।