মুনীরুল ইসলাম, শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি : শ্রীনগরে স্যার জগদীশচন্দ্র বসু ইন্সটিটিউশন ও কলেজের সহকারি প্রধান শিক্ষক মোশারফ হোসেনের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের সাথে কুরুচিপূর্ণ আচরণের অভিযোগে বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা।

রোববার সকাল সাড়ে ৯টায় শ্রীনগর উপজেলা রাঢ়িখাল ইউনিয়ন এর স্যার জগদীশচন্দ্র বসু ইনস্টিটিউশন কলেজের সামনে এ বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণীর দুই শতাধিক শিক্ষার্থী। এই অভিযোগে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সহকারী প্রধান শিক্ষক মোশারফ হোসেনকে অপসারণ ও বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ করে।

এ সময় বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত মোট ৫৬ জন শিক্ষার্থীর স্বাক্ষর সম্বলিত একটি লিখিত অভিযোগ উপজেলা শিক্ষা অফিসার সুরাইয়া আশরাফীর নিকট হস্তান্তর করেন। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সুরাইয়া আশরাফী অভিযুক্ত শিক্ষকের বিচারের আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা শ্রেণী কক্ষে যায়।

লিখিত অভিযোগে শিক্ষার্থীরা জানায়, সহকারী প্রধান শিক্ষক মোশারফ হোসেন শ্রেণী কক্ষে ছাত্রীদের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়, অশ্লীল কুরুচিপূর্ণ কথা বলে, অকথ্য ভাষা ব্যবহার করে, যৌন হয়রানীমূলক আচরণ করে, অসামাজিক কথাবার্তা ও অশালীন আচরণের একাধিক অভিযোগ আনে।

ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বলেন, স্যার আমাদের যৌনহয়রানির চেষ্টা করে। এ ছাড়া ছাত্রীদের সাথে অসভ্য আচরণ তার নিয়মিত বিষয়। আমরা অধ্যক্ষের কাছে একাধিকবার অভিযোগ দিয়েছি। তিনি এখনো কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেন নাই। সহকারী প্রধান শিক্ষক মোশারফ হোসেনকে বিদ্যালয় থেকে অপসারণ করা না হলে আমরা এ স্কুল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে অন্য স্কুলে লেখাপড়া করব।

অভিযুক্ত সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ মোশাররফ হোসেন কাছে জানতে চাইলে বলেন, আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ এসেছে তা সঠিক না, আমি লিখিত আকারে অধ্যক্ষকে জানিয়েছি।

স্যার জগদীশচন্দ্র বসু ইনস্টিটিউশন ও কলেজ অধ্যক্ষ মোঃ ফরহাদ আজিজ জানান, সহকারী প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেয়েছি বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।