শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার শেরপুর উপজেলার গাড়িদহ ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের ৪ সন্তানের জননীর করা ধর্ষণের অভিযোগে সোমবার (১০ অক্টোবর) রাতে অভিযান চালিয়ে জাহিদুল ইসলাম (৪০) ও মো. মিন্টু (৩৭) নামের দুইজনকে আটক করেছে শেরপুর থানা পুলিশ।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, উপজেলার গাড়িদহ ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের আব্দুল লতিফ ঢাকায় গার্মেন্টসে চাকরী করে। বাড়িতে তার স্ত্রী ছোট তিন সন্তানকে নিয়ে বসবার করে। স্বামী বাহিরে থাকায় জয়নগর হঠাৎপাড়া গ্রামের মোজামের ছেলে জাহিদুল ইসলাম ও কাফুরা মিচকিপাড়া গ্রামের লোকমান হোসেনের ছেলে মো. মিন্টু তাকে কু প্রস্তাব দেয়। তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় লম্পটরা ক্ষিপ্ত হয়।

গত ১ অক্টোবর বেলা ১১ টার দিকে তার ২ সন্তান সারিয়াকান্দি উপজেলায় বড় মেয়ের বাড়িতে বেড়াতে যায়। বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে ওই রাত ১০ টার দিকে জাহিদুল ইসলাম বাড়ির ওয়াল টপকিয়ে ভিতরে প্রবেশ করে মুখ চেপে ধরে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে চলে যায়।

এ সময় মো. মিন্টু বাহিরে পাহারা দেয়। এ ঘটনায় ১০ অক্টোবর সোমবার রাতে ৪ সন্তানের ওই জননী জাহিদুল ইসলাম ও মো. মিন্টুর বিরুদ্ধে শেরপুর থানায় ধর্ষনের অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শেরপুর থানা অভিযান চালিয়ে রনবীরবালা ঘাটপার থেকে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আতাউর রহমান খোন্দকার বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাদের আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।