শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার শেরপুরে মহিপুর নতুন পাড়া গ্রামে ৪ বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় গত সোমবার (১৬ মে) বিকেলে মিলন মন্ডল (২৪) নামের এক যুবককে আটক করেছে শেরপুর থানা পুলিশ।

জানা যায়, উপজেলার গাড়িদহ ইউনিয়নের মহিপুর নতুনপাড়া গ্রামের সামছুল মন্ডলের স্ত্রী খাদিজা বেগম তার ৪ বছরের শিশু কন্যাকে নিয়ে জনৈক মোহাম্মদ শফি হাজির চাতালে ধান শুকানোর কাজ করত। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবারও কাজের জন্য গেলে শিশুটি সাড়ে ৩টার দিকে চাতালের হাউজে গোসল করতে যায়। হাউজে পানি না থাকায় একই এলাকার মোজাফফর মন্ডলের ছেলে মিলন মন্ডল পানি দেয়ার কথা বলে ফুঁসলিয়ে শিশুটিকে তাহার বাড়িতে নিয়ে যায়।

টেলিভিশন দেখার কথা বলে লম্পট মিলন তার ঘরে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। শিশুটির চিৎকারে তার মা এগিয়ে আসলে মিলন পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

পরে এলাকাবাসীর সহায়তায় তাকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পরে শিশুটির বাবা সামছুল মন্ডল বাদি হয়ে মিলন মন্ডলের বিরেুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে শেরপুর থানার এসআই শাহাদাত হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ ব্যাপারে ওই শিশুর মা খাদিজা বেগম জানান, বিষয়টি অন্য কাউকে জানালে মিলন আমাকে হত্যা করবে বলে হুমকি প্রদান করেছে। আমি আদালতের কাছে এর সঠিক বিচার প্রার্থনা করছি।

এ ব্যাপারে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় মিলনকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।