কাজী খলিলুর রহমান, ঝালকাঠি প্রতিনিধি : আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, ২০১০ সালে শেখ হাসিনা সরকার প্রথম এই দেশে শিক্ষা নীতি প্রণয়ন করেন। শিক্ষা নীতি প্রণয়ন করার সময় তিনি শিক্ষামন্ত্রীকে বলেছিলেন, যুগপোযোগী আন্তর্জাতিক মানের একটি শিক্ষা ব্যবস্থা তৈরি করতে হবে যাতে আমাদের দেশের ছেলেমেয়েরা বিশ্বের অন্য কোন দেশের থেকে পিছিয়ে না থাকে।

রোববার বিকালে নলছিটি নান্দিকাঠী আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৭৭টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত শহীদ মিনারের শুভ উদ্বোধন ও পাঠ্য পুস্তক উৎসব দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি বলেন, শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড এবং সেই শিক্ষার মেরুদন্ড প্রাথমিক শিক্ষা। তাই দেশ স্বাধীন হওয়ার পরপরই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সর্বপ্রথম এই দেশের প্রাইমারি বিদ্যালয়গুলোকে জাতিয়করণ করেছিলেন। এবং শিক্ষকদেরকে সরকারি কর্মচারিতে রুপান্তরিত করে শিক্ষা ব্যবস্থার ক্ষেত্রে বিপ্লব স্বাধন করেছিলেন।

আমির হোসেন আমু বলেন, বর্তমান শিক্ষানীতি আমাদের আধুনিকতার দিকে নিয়ে যাচ্ছে। আমরা পুরোনো বইয়ে মলাট দিয়ে পডতাম, আর আজ বছরের প্রথম দিনেই শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেয়া হচ্ছে পাঠ্যপুস্তক। আপনার শিক্ষক সমাজ বিবেকবান চিন্তা করে দেখুন রাস্তা-ঘাট করে প্রতিটি এলাকার মানুষের অর্থনৈতিক সচ্ছলতা আসছে। একটি উন্নয়নকে কেন্দ্র করে আজ মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হযেছে। একটা পদ্মাসেতু আজ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যপক অবদান রাখছে।

পরে আমির হোসেন আমু শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেন। নতুন বই পেয়ে উচ্ছাস প্রকাশ করে শিক্ষার্থীরা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জান্নাত আরা নাহিদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, ঝালকাঠি সদর উপজেলা পরিষদ চেযারম্যান মোঃ আরিফ খান নলছিলি উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সিদ্দিকুর রহমান, নলছিটি পৌরসভার মেযর বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ওযাহেদ খান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা তসলিম উদ্দিন চৌধুরীসহ স্থানীয় বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।