জোয়ারের পানিতে শরণখোলার বেরিবাঁধের বাইরে বাড়ীঘর প্লাবিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে সোনাতলা গ্রাম থেকে তোলা ছবি। ছবি: প্রতিনিধি         

সুন্দরবন অঞ্চল প্রতিনিধি : বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের প্রভাবে টানা দুদিনের বর্ষণে শরণখোলার জীবনযাত্রা স্থবির হয়ে পড়েছে। জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হয়েছে বেরিবাধের বাইরের বাড়ীঘর। অপরদিকে সাগর উত্তাল থাকায় সাগরে মাছ ধরা বন্ধ রেখে নিরাপদ আশ্রয়ে রয়েছে কয়েকশ ফিশিংবোট।

গত দুইদিন ধরে নিম্নচাপের প্রভাবে উপকূলীয় অঞ্চলে অব্যাহত বৃষ্টিপাতে জনজীবন থমকে গেছে। নিত্যখেটে খাওয়া দিনমজুর মানুষেরা ঘর থেকে বের হতে পারেনি। স্কুল কলেজে শিক্ষার্থীর উপস্থিতি কম হয়েছে। উপজেলার ওয়াপদা বেরিবাঁধের বাইরে বগী, তেরাবাকা, খুড়িয়াখালী, শরণখোলা, পানিরঘাট, সোনাতলা ও ঢালিরঘোপ এলাকার সহ¯্রাধিক বাড়ীঘর জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হয়েছে।

দুবলা ফিসারমেন গ্রুপের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শাহানুর রহমান শামিম জানান, বৈরী আবহাওয়ায় সাগর উত্তাল থাকায় জেলেরা মাছ ধরা বন্ধ রেখে কয়েকশ ফিশিংবোট পাড়েরহাট, ইন্দুরকানি, শরণখোলা ও পাথরঘাটাসহ বিভিন্ন ঘাটে এবং কিছুবোট সুন্দরবনে নিরাপদ আশ্রয়ে রয়েছে

পূর্ব সুন্দরবনের দুবলা ফরেষ্ট টহল ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিলীপ মজুমদার জানান, পূর্ণীমার প্রভাবে স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় সাগরের ৩/৪ ফুট উচ্চতার জোয়ারের পানিতে সুন্দরবন প্লাবিত হয়েছে। বণ্যপ্রাণীর কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে তিনি জানান।