শেখ মোহাম্মদ আলী, সুন্দরবন অঞ্চল প্রতিনিধি : শরণখোলার সাউথখালী ইউনিয়ন পরিষদে প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচন নিয়ে বিরোধের কারনে সাত মেম্বরকে পরিষদ থেকে বের করে দিলেন চেয়ারম্যান। এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন নির্বাচিত মেম্বররা।

সাউথখালী ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বর জামাল হোসেন জমাদ্দার, বাচ্ছু মুন্সি, দেলোয়ার হোসেন মীর, আলামিন খান, জাহাঙ্গীর খলিফা, তহমিনা বেগম, লাভলি বেগম লিখিত অভিযোগে জানান,গত ৮ নভেম্বর পরিষদের প্রথম সভায় প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচনের নিয়ম থাকলে তার পছন্দের প্রার্থী নির্বাচিত করতে না পারায় সভা মুলতবি করেন। এরপর বুধবার সকাল ১০টায় পরিষদের পুনরায় সভায় প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হয়।

এ সময় ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন তার নিজের পছন্দের প্যানেল চেয়ারম্যানের নাম প্রস্তাব করেন। কিন্তু পরিষদের ১২ মেম্বরের মধ্যে সাতজন বিকল্প প্রস্তাব দেন। এতে চেয়ারম্যান ক্ষুব্ধ হয়ে ওই সাত মেম্বরকে পরিষদ থেকে বের করে দেন এবং তিনি একাই পরিষদ চালাবেন বলে ঘোষনা দেন।

মেম্বররা অভিযোগে আরো বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের সভায় চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন মেম্বরদের কোন মতামত গ্রহন করেন না। তার ইচ্ছামতো সিদ্ধান্ত নেন। কেউ কথা বললে তাকে পরিষদ থেকে বের হয়ে যেতে বলেন। পরে ওই সাত মেম্বর ঘটনার প্রতিকার চেয়ে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

জানতে চাইলে সাউথখালী ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মোজাম্মেল হোসেন বলেন, আমি কাউকে পরিষদ থেকে বের করে দেইনি। তবে প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বচিত করতে মেম্বরদের ভোটের প্রয়োজন নেই। আমার পছন্দের মেম্বর জাকির হোসেন হাওলাদারকে প্যানেল চেয়ারম্যান বানিয়েছি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার খাতুনে জান্নাত বলেন, সাউথখালীর সাত মেম্বরের একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি নিয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে ব্যাবস্থা নেয়া হবে।