হুমায়ুন কবির জুশান, কক্সবাজার : আধিপত্য বিস্তার ও তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে একের পর এক হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটছে। উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পৃথক সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে জাফর আলম নামে একজন রোহিঙ্গা মাঝিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) গভীর রাতে ১৮ ও ৭ নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক রোহিঙ্গা জানান, ক্যাম্পে সত্য কথাও বলতে নেই। আরসা, আল ইয়াকিনসহ ক্যাম্পে একাধিক সন্ত্রাসী গ্রুপ রয়েছে। যারা কারণে-অকারণে সাধারণ নীরিহ রোহিঙ্গাদের নানাভাবে নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে।

১৮ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নিরাপত্তায় নিয়োজিত আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের মুখপাত্র ফারুক আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রাত ৩টার দিকে ক্যাম্পের নিরাপত্তায় কাজ করা রোহিঙ্গা স্বেচ্ছাসেবীরা কয়েক দুর্বৃত্তকে দেখে পরিচয় জানতে চান। এ সময় হঠাৎ তারা তাদের এলোপাতাড়ি কুপিয়ে চলে যায়।

এতে ঘটনাস্থলে মারা যান জাফর আলম। আহত হয় আরও দুইজন। আহতদের মধ্যে একজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। রোহিঙ্গা সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে প্রাথমিক ধারণা করেন তিনি।

এদিকে উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী জানান, রাতে ক্যাম্প-৭ এ হালিম নামে এক রোহিঙ্গাকে দুর্বৃত্তরা পর পর তিন রাউন্ড গুলি করে। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। আধিপত্য বিস্তার বা পূর্ব শত্রুতার জেরে এই ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।