রামপাল (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : সরেজমিনে রামপাল সদর ইউনিয়ন পরিষদের বারান্দায় সাংবাদিকরা। রবিবার বেলা পৌনে ১১ টা। নিজ দপ্তরে বসে আগত সেবা প্রত্যাশীদের সেবা দিচ্ছেন চেয়ারম্যান মো. নাসির উদ্দীন। অনেক মানুষ জড়ো হয়েছেন পরিষদে।

কেউ জন্ম নিবন্ধন সনদ নিতে বা সংশোধন করতে, কেউ ওয়ারেশ কায়েম সনদ নিতে, আবার কেউ বা বিচার প্রার্থী হয়ে পরিষদে এসেছেন। কথা হয় শ্রীফলতলা গ্রামের মাহাফুজুর রহমান ও ফাতেমা বেগমের সাথে। তারা এসেছেন ওয়ারেশ কায়েম সনদ নিতে। ঝনঝনিয়ার আকরাম খান ও ওয়ারেশ কায়েম সনদ নিতে এসেছেন। শ্রীফলতলার নূর ইসলান জন্ম সনদ নিতে এসেছেন।

এভাবে অনেকেই এসেছেন সেবা নিতে।

শালিশ বৈঠকে এসেছেন মোড়ল লুৎফর রহমান, নজরুল ইসলাম ও আ. জলিল। তাদের ভোগ দলীয় জমি নিয়ে অভিযোগ করেছেন একই ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের সদস্য শেখ মো. সাইফুল্লাহ। চেয়ারম্যান উভয়ের বক্তব্য মন দিয়ে শোনেন। কাগজপত্র পর্যালোচনা করেন, সরেজমিনে গিয়ে জমির বিরোধ নিষ্পত্তি করার আশ্বাস দেন। উভয়ের পক্ষ থেকে বেশ কিছু লোক এসেছিলেন। সবাই সঠিক বিচারে সন্তুষ্ট হয়ে ফিরে গেছেন।

স্থানীয় কাদিরখোলা গ্রামের মোড়ল লুৎফর রহমান বলেন, নতুন চেয়ারম্যান মানুষের পাশে থেকে সেবা প্রদান অব্যাহত রেখেছেন। আমরা তার সেবায় সন্তুষ্ট। চা পান করিয়ে কথা বলেন সাংবাদিকদের সাথে। পরিষদকে গতিশীল করতে এবং সেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে নানামুখী পদক্ষেপ নিয়েছেন। মাদক মুক্ত, বাল্যবিবাহ বন্ধ, সন্ত্রাসী মুক্ত, শিশুদের নিরাপত্তা ও জীবনমান উন্নয়ন এবং পরিষদকে সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য করতে সকালের সহযোগিতা কামনা করেন।