রামপাল (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : রামপালে আওয়ামী লীগ নেতা ফিরোজ শেখ হত্যার গডফাদার বিল্লাল ব্যাপারী হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন নিয়ে রামপাল থানার ওসি মোঃ শামসুদ্দিনের সাথে বাসায় দেখা করা ও তাকে পুলিশ দিয়ে বাড়িতে পৌছে দেয়ার ঘটনার প্রতিবাদ করে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

গতকাল ০৭/০১/২০২২ তারিখ স্থানীয় কাষ্টবাড়িয়া গ্রামে নিজ বাড়িতে ওই সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিহত ফিরোজ শেখের স্ত্রী নাজমা বেগম।

তিনি বলেন গত ১৭ ডিসেম্বর প্রকাশ্যে দিনের বেলায় আমার স্বামী ফিরোজ শেখ কে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় আমি বাদী হয়ে এ হত্যাকান্ডের নেপথ্যের নায়ক বিল্লাল ব্যাপারীসহ ৬০ জনের নাম উল্লেখ করে রামপাল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করি। হত্যার ঘটনার পর প্রায় পঁচিশ দিন অতিবাহিত হতে যাচ্ছে। র‌্যাব ও পুলিশ এ পর্যন্ত মাত্র দশজন আসামী আটক করেছে। পলাতক আসামীরা আমাকে মামলা তুলে নেয়ান হুমকি দিচ্ছে।

এ হত্যা মামলার আসামী গডফাদার বিল্লাল বেপারি হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে এসেই এলাকায় সন্ত্রাসী কায়দায় ঘোরাফেরা করছে। বিল্লাল ব্যাপারী জামিন নিয়ে প্রথমে এলাকায় না এসে দলবলসহ রামপাল থানার ওসির সাথে কুশল বিনিময় করেছেন।

এরপর ওসি থানার একজন এসআই দিয়ে একটি মাইক্রোবাসে করে নিরাপত্তা দিয়ে বাড়িতে পৌছে দিয়েছেন। এলাকায় এসে বিল্লাল ব্যপারী সংগঠিত হচ্ছে। আমি প্রতিনিয়ত চরম নিরাপত্তহীনতার মধ্যে আছি। আমি আমার স্বামী হত্যার সুষ্ঠ বিচার দাবী করছি। বিল্লাল ব্যাপারী ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী যে কোন মুহুর্তে আমাদের জান-মালের ক্ষতি করতে পারে।

এ বিষয়ে রামপাল থানার ওসি মোঃ সামসুদ্দীনের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আপনাদের কলমে যত ক্ষমতা আছে লিখুন বলে তিনি উত্তেজিত হয়ে পড়েন।