রামপাল (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : রামপালে ইউপি সদস্য শেখ শফিকুল ইসলাম সোহাগের উপর সন্ত্রাসী হামলা, মারপিট ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় তিন সন্ত্রাসীসহ অজ্ঞাত ৫/৭ জনের বিরুদ্ধে রামপাল থানায় অবশেষে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। মামলা নং- ১৭, তারিখ-২০-১১-২০২১।

মামলার আসামিরা হলেন, উপজেলার ইসলামাবাদ গ্রামের মৃত শেখ তাছিন উদ্দীনের পুত্র মারুফ শেখ ওরফে ফাউল মারুফ, শেখ মোস্তাফিজ ওরফে ভুদে ও শেখ মাসুম বিল্লাহ ওরফে থ্রো মাসুম।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত ২০- ০৯-২০২১ তারিখের ইউপি নির্বাচনে বাঁশতলী ইউপির ২ নং ওয়ার্ডে নির্বাচনে প্রতিপক্ষ মারুফ ওরফে ফাউল মারুফ ব্যপক ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন। এতে তারা আরও ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিপক্ষ মারুফ ওরফে ফাউল মারুফ ও তার ভাইয়েরাসহ অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা সোহাগ কে হত্যার ষড়যন্ত্র করে। এ পর্যায়ে গত ইং ১৬-১১-২০২১ তারিখ সন্ধ্যায় গিলাতলা বাজারের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আ. ওহাব এর বাড়ির সামনে দিয়ে হেটে বাড়িতে আসছিলেন সোহাগ।

এ সময় মারুফের নেতৃত্বে তার ভাইয়েরা দলবদ্ধ হয়ে হামলা করে। তাকে হত্যার উদ্দেশ্য কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এ সময়ে তার গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন, আই ফোন ও ব্যবসায়ীক নগদ ১ লক্ষ টাকা ছিনিয়ে নেয়। মুমূর্ষু অবস্থায় সোহাগ কে প্রথমে রামপাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অভিযোগের বিষয়ে মাসুমের কাছে জানতে চাইলে তিনি সকল অভিযোগ অস্বীকার করেন।

রামপাল থানার ওসি মোহাম্মাদ সামসুদ্দীন মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন আসামিদের আটকে জোর তৎপরতা চালাচ্ছি।