কাজী খলিলুর রহমান, ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলায় আবদুল বারেক আকন (৪২) নামের এক মুয়াজ্জিনকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে।

রোববার সকালে উপজেলার মঠবাড়ি ইউনিয়নের হাইলাকাঠি পাড়েরহাট জামে মসজিদে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মিরানা আফরোজ বলেন, বারেকের শরীরে শক্ত কিছু দিয়ে আঘাত করায় তাঁর মাংসপেশি কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

বারেক উপজেলার পূর্ব ইন্দ্রপাশা গ্রামের মৃত আবদুল মান্নান আকনের ছেলে এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মঠবাড়ি ইউনিয়ন শাখার প্রচার সম্পাদক।

বারেক অভিযোগ করে বলেন, হাইলাকাঠি পাড়েরহাট এলাকায় তাঁর একটি দোকান আছে। দুই দিন আগে তাঁর কাছে টাকা ধার চান স্থানীয় এক ব্যবসায়ী। কিন্তু টাকা ধার না দেওয়ায় আজ সকালে শিশুদের কোরআন শিক্ষা দেওয়ার সময় মসজিদে ঢুকে তাঁকে স্টিলের টর্চলাইট দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করেন ওই ব্যক্তি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ব্যক্তি মুঠোফোনে বলেন, কোরআন শিক্ষা দেওয়ার সময় তাঁর ৯ বছর বয়সী মেয়েকে মুয়াজ্জিন শ্লীলতাহানি করেন। বিষয়টি মেয়ের কাছ থেকে জানতে পেরে তাঁকে টর্চলাইট দিয়ে পিটিয়েছেন।

এদিকে বারেককে মারধরের খবর পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জড়ো হতে শুরু করেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের উপজেলা কমিটির নেতা-কর্মীরা। পুলিশ বিচারের আশ্বাস দিয়ে তাঁদের শান্ত রাখেন।

রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পুলক চন্দ্র রায় বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।