মিজানুর রহমান মিজান, রংপুুর অফিস : রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র কক্ষে পিস্তল থেকে গুলি বের হওয়াার ঘটনা ঘটেছে। যদিও এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে এসময় কক্ষে থাকা অনেকেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। ঘটনা খতিয়ে দেখতে ছুটে আসে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

এ নিয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন মেয়র।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার দুপুড়ের পড়ে সিটি কার্যালয়ে তার সাথে দেখা করতে আসেন রংপুর জেলা মটর মালিক সমিতির সভাপতি একেএম মোজাম্মেল হক।

কথা বলার একপর্যায়ে মোজাম্মেল হক তার পকেট থেকে মোবাইল বের করতে গিয়ে তার লাইসেন্সকৃত পিস্তল নিচে মেঝেতে পড়ে যায়। এতে নিকট শব্দে পিস্তলের মিস ফায়ারিং হয়। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও উপস্থিত সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

মেয়র আরো বলেন, শব্দ হলেও রুমে গুলির কোনো চিহ্ন বা খোসা খুঁজে পাওয়া যায়নি। এঘটনায় মহানগর মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালী থানায় মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা বাদী হয়ে একটি জিডি করেন।

এ বিষয়ে মোজাম্মেল হক জানিয়েছেন, পকেট থেকে মোবাইল বের করতে গিয়ে পিস্তল মাটিতে পড়ে যায়। ১৯৮০ এর দশকের তৈরি পিস্তলটিতে অসাবধানতাবশত সেখানে একটা গুলি আটকে থাকায় তা বের হয়ে শব্দ হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এ সময় কক্ষে একটি বেসরকারি সংস্থা আয়োজিত ছায়া সংসদের কার্যক্রম হিসেবে প্রতীকী মেয়রের দায়িত্ব পালন অনুষ্ঠান চলছিল।

রংপুর মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমশিনার (ডিবি এন্ড মিডিয়া) সাজ্জাদ হোসেন জানিয়েছেন, ঘটনার পর তারা পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখেছেন। তেমন কোন আলামত পাওয়া যায়নি। তবে ঘটনাটি একটি দূর্ঘটনা বলে তারা ধারনা করছেন।