মিজানুর রহমান মিজান, রংপুর অফিস : রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১নং মেডিসিন (পুরুষ) ওয়ার্ড থেকে মোছাঃ বিউটি আক্তার বেবি (২০) নামের একজন প্রতারক ও ভূয়া নার্স আটক।

সোমবার (৮ আগষ্ট) বিকালে রমেক হাসপাতালের ১নং মেডিসিন (পুরুষ) ওয়ার্ড থেকে নার্সের পোশাক পরিহিত অবস্থায় এ প্রতারক ও ভূয়া নার্স আটক করা হয়।

আটক ভূয়া নার্সকে জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায়, তার নাম মোছাঃ বিউটি আক্তার বেবি (২০), তার স্বামী তারেক রহমান নীলফামারী জেলার একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠান (এনজিও)’র মাঠ কর্মী। সে স্থানীয় রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার হুলাশুগঞ্জ, কাশিনাথপুর গ্রামের জবেল আলীর মেয়ে।

রমেক হাসপাতালের মেডিসিন (পুরুষ) ১নং ওয়ার্ডের সিনিয়র ষ্টাফ নার্সগণ নিয়োমিত ডিউটি কালীন অবস্থায় সন্দেহজনকভাবে উক্ত ওয়ার্ডে নার্স এর পোষাক পরিহিত অবস্থায় তার পরিচয় জানতে চাইলে তার কথায় স্টাফ নার্সদের সন্দেহ হলে তাকে আটক করা হয়। পরে তাকে হাসপাতালের পরিচালকের অফিসে নিয়ে আসেন।

রমেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডাঃ মোকাদ্দেম হোসেন জানান, মেডিসিন (পুরুষ) ১নং ওয়ার্ডের সিনিয়র ষ্টাফ নার্সগণ তাকে অফিসে নিয়ে আসলে জিজ্ঞাবাদে সে জানায় রমেক হাসপাতালে ভূয়া নার্স হিসেবে কাজ করছেন। এ ছাড়া তার নিকটে থাকা সসন্দেহজনক তার হাতে ও তার ব্যবহৃত ব্যাগে রক্ষিত অবস্থায় ২টি মোবাইল ফোন (একটি স্মাট ফোন এবং অন্যটি বাটন ফোন) সহ যক্ষা পরীক্ষার একটি ফরম, তার নিজের বানানো রমেক হাসপাতালের একটি ভূয়া আইডি কার্ড (যেখানে জন্ম তারিখ ভুল) এবং তার ব্যবহৃত একটি ভ্যানিটি ব্যাগ উদ্ধার করা হয়।

রমেক হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ শরীফুল হাসান জানান, রমেক হাসপাতালের পরিচালক বরাবর ১নং পুরুষ ওয়ার্ড নার্স ইনচার্জ একটি লিখিত অভিযোগ এর ভিত্তিতে পরিচালকের নির্দেশক্রমে কোতয়ালী থানায় একটি অভিযোগসহ ভূয়া নার্সকে পুলিশে প্রেরণ করা হয়।