মিজানুর রহমান মিজান, রংপুর অফিস : রংপুরে বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজ অনার্স- মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশন এর পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে সারাদেশের বিভাগীয় শহরে এমপিওভুক্তির দাবিতে অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

রোববার (২৪ এপ্রিল) কেন্দ্রীয় কর্মসূচি অংশ হিসাবে রংপুর বিভাগীয় নগরীর প্রেসক্লাব চত্ত্বরে বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশন রংপুর বিভাগীয় কমিটির সম্বনয়কারী বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশন রংপুর বিভাগীয় সম্বনয়কারী জেলা সভাপতি মোঃ আবু সাঈন সুজন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশন কেন্দ্রীয় সভাপতি মোঃ হারুনুর রশিদ।

মানববন্ধনে জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাজমুল সিদ্দিক রাজু সঞ্চালনায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মেহরাব আলী।

রংপুর জেলা শাথার সহ-সভাপতি শাহারুল হুদা শামীম, দিনাজপুর জেলা সভাপতি মোহাদেব শমা, সাধারণ সম্পাদক শারমিন মিতু, লালামনিহাট জেলা সভাপতি নুরুজ্জামান লিটন, সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান, ঠাকুরগাও জেলা সভাপতি আনোয়ারউল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মাহাফুজুর রহমান প্রমুখ। বক্তারা বলেন ১৯৯৩ সাল থেকে জনবল কাঠামো না থাকার কারনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত বেসরকারি কলেজসমূহে বিধি মোতাবেক নিয়োগপ্রাপ্ত অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকগণ সরকারি সুযোগ-সুবিধার (এমপিও)বাইরে রয়েছেন। একই প্রতিষ্ঠানে ইন্টারমিডিয়েট ও ডিগ্রি শিক্ষকগণ এমপিওভুক্ত হলেও অনার্সমাস্টার্স শিক্ষকগণ বিধি মোতাবেক নিয়োগ পেয়েও দীর্ঘ ২৯ বছর থেকে চরম বেতন বৈষম্যের মধ্যে রয়েছেন।

অন্যদিকে কামিল (মাস্টার্স শ্রেণির শিক্ষকগণ এমপিওভুক্ত হয়েছেন। অথচ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকগণ এনটিআরসিএ সনদধারী হযেও জনবল ও এমপিও নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত না থাকায় এমপিওভুক্ত হতে পারছেন না, যা চরম বৈষম্য এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী। আমাদের দাবি আসন্ন ভর্তি কার্যক্রম শুরুর আগেই কর্মরত মাত্র ৫,৫০০ জন বিধি মোতাবেক নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষককে এমপিওভুক্তির আওতায় আনার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।

জাতীয় শিক্ষানীতি-২০১০ এর অধ্যায়-০৮ এ বর্ণিত উচ্চ শিক্ষার কৌশল বাস্তবায়নের জন্য এসকল শিক্ষকের এমপিওভুক্ত করা অত্যন্ত যৌক্তিক। এমপিওভুক্ত না করার কারনে প্রান্তিক পর্যায়ের প্রায় সাড়ে তিন লাখ গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীকে শিক্ষানীতি-২০১০ এর অধ্যায়-০৮ এ বর্ণিত উচ্চ শিক্ষার কৌশল বাস্তবায়নের আওতায় নেয়ার দাবি জানান তারা।