মিজানুর রহমান মিজান, রংপুর অফিস : রংপুর মহানগরীর চাঁন্দকুঠি সৎ বাজার এলাকায় অসহায় পরিবারের জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, জসিম উদ্দিনের বাবার জমি জোর করে দখল করার পাঁয়তারা চালিয়ে যাচ্ছে এক প্রভাবশালী ব্যাক্তি।

সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, হারাগাছ পৌরসভার বানুপাড়া কলেজ বাজার এলাকার মৃত তৈয়ব আলীর ছেলে নুরুজ্জামান রাশেদ ও তার ভাইয়েরা মিলে দিনে-দুপুরে প্রশাসনের ভয় দেখিয়ে ওই জমি দখলের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে বাঁধা প্রদান করলে পত্রিক সূত্রে জমির মালিক আবু কালামসহ তার পরিবারকে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া করে আঘাত করে পালিয়ে যায় ।

এ বিষয়ে ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মামুন-অর রশিদ মানিক সরকারের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, এই জমির মালিক আবু কালাম। বর্তমানে এই জমির দোকান ভাড়া আদায় করেন আবু কালামের ছেলে জসিম উদ্দিন।

অন্যায়ভাবে জসিমের প্রত্রিক সম্পত্তিতে তারা দোকানপাট করার পায়তারা চালাচ্ছে। মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তারা জামিনে বাড়িতে এলে হঠাৎ করে প্রশাসনের ভয় দেখিয়ে দোকানের সামনে ওয়াল করে জমি দখলের পায়তারা চালাচ্ছে।

সৎ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মমিন মিয়ার তার সঙ্গে কথা হলে তিনি তার বক্তব্যে বলেন, এই এলাকায় আমি ছোটকাল থেকেই দেখে এসেছি এই জমির মালিক জসিম উদ্দিনের বাবা। কিন্তু নুরুজ্জামান রাশেদ তার দলবল নিয়ে ছোট ভাই সাহেব আলীসহ জোর করে জমি দখলের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ভাড়াটিয়া ফারুক জানান, আমাদের দোকানপাট যারা করে দিয়েছে তাদেরকে আমরা ২০১৭ সাল থেকে দোকান ভাড়ার টাকা আবুল কালামের ছেলে জসীমউদ্দীনের কাছে জমা প্রদান করি। কিন্তু দিন দুপুরে দোকান বন্ধ করে দিয়ে দোকানের মালামাল নষ্ট করার পায়তারা চালাচ্ছে তারা একটি মহল।

আবু কালামের ছেলে জসীম উদ্দীন তার বক্তব্যে তিনি বলেন, আমরা গরীব অসহায় আমাদের থাকবার মত কোন জায়গা নেই আমার বর বাবা ৭ শতাংশ জমি রাতের আধারে চুরি করে বিক্রয় করেছ আমরা জানিনা। তবে আমাদের ওই জমিতে সাড়ে ৩ শতাংশ জমি রয়েছে। সেটি বিক্রিয় করা হয়নি। আমার বাপ দাদার সম্পত্তি ছোটবেলা থেকেই দেখে এসেছি। কিন্তু তারা এই জমি জবরদখল করে খাওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছে।