খোলাবার্তা২৪ ডেস্ক : পরপর দুই ম্যাচ পরাজয়। সেই সঙ্গে সিরিজ পরাজয়ও নিশ্চিত। এখন আবার জরিমানার মুখে পড়লো বাংলাদেশ ক্রিকেট টিম। পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ধীর গতির বোলিংয়ের জন্য জরিমানা দিতে হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে।

ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) জানায়, ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে এক ওভার কম বোলিং করে বাংলাদেশ দল। যে কারণে অধিনায়কসহ দলের সকল খেলোয়াড়কে তাদের ম্যাচ ফি’র ২০ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে।

আইসিসির নিয়মে ২.২২ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বল করতে ব্যর্থ হলে প্রতি ওভারের জন্য খেলোয়াড়দের ম্যাচ ফি’র ২০ শতাংশ জরিমানা করা হয়।

এদিকে, প্রথম ম্যাচে আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে শাস্তি দেয়া হয়েছে পাকিস্তানের পেসার হাসান আলিকে।

বাংলাদেশ ইনিংসের ১৭তম ওভারে টাইগারদের উইকেটরক্ষক ব্যাটার নুরুল হাসান সোহানকে আউট করার পর ‘সেন্ড অফ’ দেখিয়েছিলেন হাসান। যা আইসিসির আচরণবিধি অনুযায়ী লেভেল-১’র অপরাধ।

আইসিসির নীতিমালার ২.৫ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী কোন খেলোয়াড় আগ্রাসী মনোভাব দেখাতে পারবে না। এই অপরাধের কারণে হাসানকে তিরস্কার করেছে আইসিসি। সেই সাথে হাসানকে ১টি ডিমেরিট পয়েন্টও দেয়া হয়। গত ২৪ মাসের মধ্যে হাসানের এটিই প্রথম ডিমেরিট।

এই দুই বিধি ভঙ্গের জন্য পাকিস্তানী পেসার হাসান ও বাংলাদেশ অধিনায়ক নিজেদের অপরাধ মেনে নেওয়ায় কোন আনুষ্ঠানিক শুনানির প্রয়োজন পড়েনি।