গাজীপুর প্রতিনিধি : মেয়র জাহাঙ্গীর কি বহিষ্কার হচ্ছেন? নাকি তাকে সতর্ক করা হবে? তার মেয়র পদ কি থাকবে? ইত্যাদি হাজারো জল্পনা-কল্পনার অবসান হলো শুক্রবার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির এক গুরুত্বপূর্ণ সভার মাধ্যমে।

আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত আসে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর আলমকে আওয়ামী লীগ থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

গণমাধ্যমে এই সংবাদ প্রচার হওয়ার সাথে সাথে গাজীপুরে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা আনন্দ মিছিল বের করে ও আতশবাজি ফুটিয়ে আনন্দ-উল্লাসে মেতে ওঠে। তারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দকে বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা নিয়ে কটাক্ষকারীর বিরুদ্ধে উপযুক্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানান।

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা নিয়ে মেয়র জাহাঙ্গীরের বিরূপ মন্তব্যের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে গাজীপুরে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভে ফেটে পড়ে এবং এর প্রতিবাদে রাস্তায় আন্দোলন করে।

বিষয়টি আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারক মহলের নজরে আসলে মেয়র জাহাঙ্গীরকে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শোকজ করা হয়।জাহাঙ্গীরের শোকজের জবাব দলের নিকট যুক্তিযুক্ত মনে না হয় এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এদিকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গণমাধ্যমকে জানান যাচাই বাছাই করেই তার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। মেয়রের ব্যাপারে স্থানীয় সরকারকে অবহিত করা হয়েছে। তারা পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।

এদিকে এ ঘটনায় গাজীপুর মহানগরের টঙ্গী বোর্ড বাজার চৌরাস্তা সহ বিভিন্ন জায়গায় আনন্দ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।শুক্রবার সন্ধ্যায় মহানগরের বোর্ডবাজারে মহানগরের সাবেক ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম দ্বীপের নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল হয়েছে।

আনন্দ মিছিলে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা শাহজাহান মাস্টার, কৃষকলীগ নেতা শাহজালাল তরুণ, গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য মোঃ শফিকুল ইসলাম শফিক, বাবুল মন্ডল সহ আরো অনেকে।