মুন্সীগঞ্জ সংবাদদাতা : মুন্সীগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল সিদ্ধেশ্বরী বাজারের দুই মুদি দোকান থেকে নয় হাজার লিটার সয়াবিন তেল জব্দ করা হয়েছে। ভ্রাম্যমান আদালত দোকান দু’টি থেকে এসব তেল জব্দ করেন।

জব্দকৃত তেল থেকে ৫ হাজার লিটার তেল স্থানীয় ক্রেতাদের নিকট তেলের বোতলের গায়ে লেখা মূল্যে ২ মে সোমবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ৭ ঘণ্টা ধরে বিক্রি করা হয়।

উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম সোহাগ মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ওই দুই প্রতিষ্ঠানকে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করেন।

বাজার মূল্যে তেল বিক্রির সংবাদে তেল কেনার জন্য ক্রেতাদের হট্টগোল বাধলে তা নিয়ন্ত্রণে পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের বাজারটির দোকানে বিপুল পরিমাণ সয়াবিন তেল মজুদ রেখে তেলের সংকট দেখিয়ে তা বাজার মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রি করার সংবাদে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

সিদ্ধেশ্বরী বাজারের মায়ের দোয়া প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী তাইজুল ইসলাম তার দোকানে ৫ হাজার ৪৮৭ লিটার তেল এবং একই বাজারে তাজুল ইসলামের আপন ভাই মা বাবার দোয়া প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী নজরুল ইসলাম তার দোকানে ৩ হাজার ৫২০ লিটার সয়াবিন তেল মজুদ করে বোতলের গায়ে মোড়কে উল্লেখিত দামের চেয়ে অতিরিক্ত দামে বিক্রি করে আসছিল।

টঙ্গীবাড়ী উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল ইসলাম সোহাগ জানান, সংবাদ পাই ওই বাজারের দুটি মুদি দোকানে বিপুল পরিমাণ তেল মজুদ করে বাড়তি দামে বিক্রি করছে। পরে ওই দুই প্রতিষ্ঠানের গোডাউনে অভিযান পরিচালনা করে বিপুল পরিমাণ তেল উদ্ধার করে বাজার মূল্য গ্রাহকের কাছে বিক্রি করতে বলি।

অভিযান পরিচালনার সময় উপস্থিত ছিলেন টঙ্গীবাড়ী থানা অফিসার ইনচার্জ মোল্লা সোহেব আলী, টঙ্গীবাড়ী উপজেলা স্যানিটেশন অফিসার আনারুল ইসলাম, ক্যাবের সাধারণ সম্পাদক বাক্কার মাঝি প্রমুখ।

অপর দিকে সিদ্ধেশ্বরী বাজারে সয়াবিন তেল অধিক মূল্যে বিক্রির দায়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার সংবাদ পেয়ে উপজেলার হাসাইল ও পাঁচগাও বাজারের দোকানদারেরা দোকান বন্ধ করে চলে যায়।