নিজস্ব প্রতিবেদক, টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলের মির্জাপুর থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিসেবে যোগদান করেছেন শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম। রোববার (৮ মে) বিকেলে মির্জাপুর থানার হল রুমে আনুষ্ঠানিক ভাবে মির্জাপুর থানায় দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। বিদায়ী অফিসার ইনচার্জ মো. আলম চাঁদ তাকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়ে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

এ সময় সহকারী পুলিশ সুপার (মির্জাপুর-নাগরপুর সার্কেল) এ এস এম আবু মুসা, মির্জাপুর থানার ওসি তদন্ত মো. গিয়াস উদ্দিন, সেকেন্ড অফিসার মো. গোলাম মোস্তফা, বাঁশতৈল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সফেক্টর মো. সাকাওয়াত হোসেন, দেওহাটা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. আইয়ুব হোসেন খানসহ মির্জাপুর থানার কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

মির্জাপুর থানা সূত্র জানায়, শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিমের পিতার নাম শেখ মোতালেব আহমেদ এবং মাতার নাম জায়েদা বেগম। তার গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জ সদর উপজেলায়। তিনি তিন কন্যা সন্তানের জনক। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য বিজ্ঞান বিভাগের একজন মেধাবী ছাত্র ছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা শেষ করে ১৯৯৫ সালে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে দেশ সেবার ব্রত নিয়ে সহকারী পুলিশ পরিদর্শক হিসেবে যোগদান করেন। কর্মদক্ষতায় পদন্মতি পেয়ে অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিসেবে যশোহর জেলার বেনাপোল পোর্ট বন্দর থানা ও ঝিকরগাছা থানা, সাতক্ষিরা জেলার কলারোয়া, রাজধানী ঢাকার ধানমন্ডী, মুগদা, গুলশান থানা এবং উত্তরার এপিবিএনে সুনামের সঙ্গে ওসির দায়িত্ব পালন করেছেন।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম বলেন, সেবাই পুলিশের ধর্ম এবং পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ এটাকে আমি বাস্তবে রুপান্তর করতে চাই। পুলিশের সেবাকে জনগনের দৌরগোড়ায় পৌছিয়ে দেওয়াই হচ্ছে আমার মুল লক্ষ ও উদ্যেশ্য।

আমি মির্জাপুর থানায় নতুন হিসেবে যোগদান করেছি। সকলের সার্বিক সহযোগিতায় মির্জাপুরকে মাদক মুক্ত, বাল্য বিবাহ প্রতিরোধসহ মডেল হিসেবে উপহার দিতে চাই। স্থানীয় এমপি, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান-ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, গণমাধ্যমকর্মী, সকল রাজনৈতিক দলের নেত্রীবৃন্দ, সুশিল সমাজ, শিক্ষক, ঈমাম, পৌরসভা এবং বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বারসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।