নিজস্ব প্রতিবেদক, টাঙ্গাইল : ঢাকা-রাজশাহী-রংপুর ট্রেন লাইনের টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে তেলবাহী ট্যাংলড়ি লাইনচ্যুত হয়ে উল্টে খাদে পরে উত্তর বঙ্গের সঙ্গে ট্রেন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পরেছে। অল্পের জন্য বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা হয়েছে।

সোমবার (২০ জুন) বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে এ ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় ট্রেনের লোকো মাষ্টার (চালক) আহত হয়েছেন।

মির্জাপুর ট্রেন স্টেশনের লাইন ম্যান লিটন মিয়া জানান, ইঞ্জিনসহ ২৪ টা ট্যাংলড়ি নিয়ে চট্রগ্রাম থেকে তেলবাহী ট্যাংলড়ি ইঞ্জিন নং ৩০০২ তেল নিয়ে রংপুর যাচ্ছিল। ওয়াগন নং ৬২০১৭ একটি ট্যাঙ্ক লড়িতে প্রায় ৪০ হাজার লিটার তেল ছিল।

ট্যাংলড়িটি মির্জাপুর স্টেশনের কাছাকাছি এলে লোকো মাষ্টার সিগন্যাল অমান্য করে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় ট্যাংলড়িটি লাইনচ্যুত হয়ে সামনের ইঞ্জিনসহ তেলসহ দুটি বগি উল্টে খাদে পরে যায়। আহত হয় ট্রেনের লোকো মাষ্টার। ফলে উত্তর বঙ্গের সঙ্গে ট্রেন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পরে।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর ট্রেন স্টেশনের স্টেশন মাষ্টার মো. কামরুল হাসানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, দুর্ঘটনা কবলিত ট্যাংলড়িটি উদ্ধারে কাজ চলছে। ট্যাংলড়ির লোকো মাষ্টার আহত হয়েছেন। বাংলাদেশ রেলওয়ে বিভাগের কর্মকর্তাগন ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসছেন। উত্তর বঙ্গের সঙ্গে ট্রেন চলাচল সাময়িক বন্ধ রয়েছে। রাতের মধ্যে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করার কাজ চলছে।

এদিকে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে মির্জাপুর ফায়ার সার্ভিস, মির্জাপুর থানা পুলিশ, হাইওয়ে পুলিশ, রেলওয়ে পুলিশ ও ট্রাফিক পুলিশসহ আশপাশের লোকজন উদ্ধার কাজ শুরু করে। রেলওয়ে বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রিয়াদ আসাদ, ইডবিøউই নুরুজ্জামানসহ কর্মকর্তাগন ঘটনাস্থল পরিদশর্নে এসেছেন। এ রিপোর্ট পাঠানো পর্যন্ত খাদে পরে যাওয়া ট্যাংলড়ি ট্রেনটি উদ্ধার হয়নি।