নিজস্ব প্রতিবেদক, টাঙ্গাইল : ৯ম ধাপে আগামী ১৫ জুন টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ছয় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আজ মঙ্গলবার (১৭ মে) মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে উৎসব মুখর পরিবেশে চেয়ারম্যান, সাধারন আসনে পুরুষ মেম্বার ও সংরক্ষিত আসনে মহিলা মেম্বার প্রার্থীগন রিটার্নিং অফিসারের নিকট মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। সকাল থেকেই বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে প্রার্থীগন কর্মী সমর্থক নিয়ে উপজেলা পরিষদ চত্তরে এসে জড়ো হয়ে এ মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মীর শরীফ মাহমুদ ও সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার তাহরীম হোসেন সিমান্ত জানান, ছয় ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থীগন নির্বাচন কমিশনের আইন মেনে রিটার্নিং অফিসারের নিকট মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। ফতেপুর ইউনিয়নে আব্দুর রউফ, ভাওড়া ইউনিয়নে আমজাদ হোসেন, বহুরিয়া ইউনিয়নে আবু সাইদ মিয়া, লতিফপুর ইউনিয়নে জাকির হোসেন, আজাগানা ইউনিয়নে আব্দুল কাদের সিকদার এবং তরফপুর ইউনিয়নে নাজিম মোল্লা মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

অপর দিকে এই নির্বাচনে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন নেতা দলীয় প্রতিকে নির্বাচনে সরাসরি অংশ গ্রহন না করলেও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন ফতেপুর ইউনিয়নে হুমায়ুন তালুকদার, আফসার উদ্দিন, ভাওড়া ইউনিয়নে সাহিদুর রহমান খান সাইদ, মাসুদ রানা, বহুরিয়া ইউনিয়নে আব্দুস সালাম মিয়া, রেজাউল করিম বাবুল, লতিফপুর ইউনিয়নে মো. মোশারফ হোসেন, আলী হোসেন রনি, আজগানা ইউনিয়নে মো. রফিকুল ইসলাম সিকদার, মো. আবুল হোসেন ভেন্ডার ও মো.জাকির হোসেন এবং তরফপুর ইউনিয়নে সাইদ আনোয়ার, মো. শরিফুল ইসলাম শরিফ ও আজিজ রেজা।

এ ছাড়া ছয় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সাধারন ওয়ার্ড ৫৪ টিতে প্রায় দুই শতার্ধিত মেম্বার, সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১৮টি ওয়ার্ড প্রায় অর্ধশতাধিক সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার মনোনয়নপত্র দাখিল করেছে বেল শেষ খবর পর্যন্ত জানা গেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার শরিফা বেগম বলেন, আসছে ১৫ জুন মির্জাপুর উপজেলার ফতেপুর, ভাওড়া, বহুরিয়া, লতিফপুর, আজগানা ও তরফপুর এই ছয় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ইলেকট্রিক ভোটিং মেশিন ( ইভিএম) ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রার্থীগন উৎসব মুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই শেষে নির্বাচন কমিশন, জেলা প্রশাসক ও টাঙ্গাইল জেলা নির্বাচন কর্মকর্তাসহ উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সার্বিক সহযোগিতায় নির্বাচন গ্রহনযোগ্য, সুষ্ঠু ও শান্তিপুর্ন ভাবে গ্রহনের লক্ষে সকল প্রকার প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে।