মিরসরাই প্রতিনিধি : মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে মিরসরাইয়ের আবুতোরাব বাজার এলাকায় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আত্ম ন্যায় প্রতিষ্ঠান ঐক্যবদ্ধ শক্তি ‘হিতকরী’র আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) আবুতোরাব মধ্যম বাজারে সকাল ১০টায় পরিচ্ছন্নতা ও বৃক্ষ রোপণ, ‘দুই দশকে হিতকরী’র পর্দা উম্মোচন হয়। উদ্বোধন করেন আবুতোরাব বাজারের বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী, ভূঁইয়া ক্লথ স্টোরের স্বত্ত্বাধিকারী নজরুল ইসলাম ভূঁইয়া।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, মিরসরাই উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এম আলা উদ্দিন।

এরপর মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনি – স্মৃতি কথা ও বিশেষ সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ১১ নং মঘাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসাইন মাষ্টার।

প্রধান অতিথি ছিলেন কবি ও সাহিত্যিক বীর মুক্তিযোদ্ধা কাইয়ুম নিজামী।

বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বন্দর উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সাবেক প্রধান প্রকৌশলী খায়রুল মোস্তফা, বীর মুক্তিযোদ্ধা মফিজ বাঙালি, নারী উদ্যোক্তা, চট্টগ্রাম উইমেন চেম্বারের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট রুহি মোস্তফা।

শেষ পর্বে বিনামূল্যে রক্ত পরীক্ষা ও মাস্ক বিতরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন মায়ানী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজ্বী মামুনুর রশীদ।

প্রধান অতিথি ছিলেন জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া।

বিশেষ অতিথি আবুতোরাব উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা রবিউল হোসাইন নিজামী, সাংবাদিক ও কলামিস্ট মোহাম্মদ হাসান, ব্যাংকার মোঃ আজম খান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ মাহমুদ।

সংগঠনের সভাপতি মোঃ নিয়াজুল ইসলাম নয়ন এর সভাপতিত্বে যুগ্ম সাধারণ নুরুচ্ছাপার সঞ্চালনায় ‘উপকার করো, উপকৃত হবে’ এ মন্ত্রে গড়ে ওঠা ‘হিতকরী’ মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে দিনব্যাপী কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে দিবসটি উদযাপন করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মিরসরাই প্রেস ক্লাবের সভাপতি নুরুল আলম, কমফোর্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন, শান্তিনীড়ের সভাপতি আশরাফ উদ্দিন সোহেল, অধম্য ২০০৫ এর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য কামরুল হাসান জনি, দুর্বার প্রগতি সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হাসান সাইফ উদ্দিন, নির্বাণ যুব সংঘের সভাপতি তানভীর আহমেদ, মধ্যম আমবাড়িয়া যুব সংঘের সভাপতি আলতাফ হোসেন, আদর্শ বন্ধু ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি দীন মোহাম্মদ, সৃজন যুব সংঘের সভাপতি আসিফুল ইসলাম প্রমুখ।

এ সময় প্রায় ৩শ জনের বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করা হয়। অনুষ্ঠিত শেষে আমন্ত্রিত অতিথিদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেয়া হয়। মুক্তিযুদ্ধের সকল বীর শহীদ, জাতীয় নেতৃবৃন্দের আত্মার মাগফেরাত কামনা ও দেশের কল্যাণ কামনায় দোয়া মুনাজাতের মধ্য দিয়ে কর্মসূচির সমাপ্তি হয়।