মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : মিরসরাইয়ে যুবলীগ কর্মী শহিদুল ইসলাম আকাশ হত্যা মামলার আসামী স্থানীয় হিঙ্গুলী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ২ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মিজানুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে চিনকিরহাট এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানায়, গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিহত আকাশের বড় বোন নাজমা আক্তার বাদি হয়ে হুমায়ুন কবির ওরফে মামুনকে আসামী করে ১৪ জনের নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাত ১০-১২ জনের নামে মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলায় ইউপি সদস্য মিজানুরকে ৫ নম্বর আসামী করা হয়।

মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নূর হোসেন মামুন ইউপি সদস্য মিজানুরকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহত শহিদুল ইসলাম আকাশের বড় বোন নাজমা আক্তার বাদী হয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

ওই মামলার সূত্র ধরে এজাহারে উল্লেখ ৫ নম্বর আসামী ইউপি সদস্য মিজানকে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে স্থানীয় চিনকিরহাট এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। বুধবার সকালে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার হিঙ্গুলী ইউনিয়নের চিনকির হাট এলাকায় একটি ফার্ণিচার দোকানের সামনে কুপিয়ে এবং জবাই করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয় যুবলীগ কর্মী শহিদুল ইসলাম আকাশকে। এ ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জোরারগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহত আকাশের বড় বোন নাজমা আক্তার।