মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে জায়গা-জমি বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় ৭ জন আহত হয়েছে। উপজেলার ইছাখালী ইউনিয়নের লুদ্দাখালী গ্রামের সাহাব উদ্দিন সওদাগর বাড়িতে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে।

হামলায় আহতরা হলো মো. সিরাজুল ইসলাম প্রকাশ সাব মিয়া সওদাগর (৭৫), শেখ ফরিদ মিয়াখান (৪০), রবিউল হোসেন সওদাগর (৭২), আনোয়ারা বেগম (৫৫), ইয়াছমিন আক্তার (৩৫), আকলিমা আক্তার পিংকি (২১) ও সুরমা আক্তার (৪৮)।

আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, মাতৃকা হাসপাতাল ও বারইয়ারহাট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ হামলার ঘটনায় সিরাজুল ইসলাম বাদি হয়ে ৫ জনের নামে জোরারগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

হামলায় আহত শেখ ফরিদ অভিযোগ করেন, দীর্ঘদিন ধরে একই বাড়ির হোসেনুজ্জামানের সাথে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বেশ কয়েকবার বৈঠকও হয়েছে। কিন্তু বৈঠকের কোন সীদ্ধান্ত হোসেনুজ্জামান ও তার ছেলেরা মানেনা। সর্বশেষ তারা ধারালো দা-চুরি লাঠি নিয়ে হোসেনুজ্জামানের ছেলে মিজান, রাজিব, তারেক সহ ৫-৬ জনের একটি গ্রুপ এলোপাতাড়ি আমার বাপ-চাচাদের উপর হামলা করে। তাদের বাঁচাতে ছুটে গেলে আমি, আমার মা ও আমার স্ত্রীর উপরও হামলা করে। পরে আশপাশের লোকজন এসে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সহ বিভিন্ন হাসপাতালে নিয়ে যায়। আমি এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছি।

এ বিষয়ে জোরারগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) মো. আবুল খায়ের বলেন, ইছাখালী ইউনিয়নের লুদ্দাখালী গ্রামে হামলার ঘটনায় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।