মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : মিরসরাইয়ে অগ্নিকান্ডে ৫টি বসতঘর পড়ে ছাই হয়ে গেছে। সোমবার (১ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার ওসমানপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের পূর্ব সাহেবপুর গ্রামের আমির আলী সদাগর বাড়িতে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। অগ্নিকান্ডে প্রায় ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলো।

অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থরা পরিবারগুলো হলো, মৃত দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আমিনুল হক, ওবায়দুল হক, মাহমুদুল হক, তাজুল হক, সাইদুল হক। আগুনে তাদের পাঁচ ভাইয়ের বসত ঘর ও রান্না ঘর পুড়ে যায়। খবর পেয়ে মিরসরাই ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ষ্টেশনের একটি ইউনিট ২ ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত আমিনুল হক জানান, মেয়ের বিয়ের জন্য ব্যাংক থেকে নগদ ১ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা উত্তোলন করে ঘরে রেখেছিলাম। আগুনে নগদ টাকা সহ আমাদের ৫ ভাইয়ের ঘরে থাকা স্বর্ণালঙ্কার, নগদ টাকা, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, আসবাবপত্র পুড়ে গেছে। আগুন থেকে কিছুই রক্ষা করা সম্ভব হয়নি।

উপজেলার ওচমানপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মফিজুল হক বলেন, অগ্নিকান্ডে পূর্ব সাহেবপুর গ্রামের মৃত দেলোয়ার হোসেনের ৫ ছেলের বসতঘর ও রান্না ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। শরীরের কাপড় ছাড়া আর কিছুই রক্ষা করা সম্ভব হয়নি। আমি ব্যক্তিগত ভাবে তাদের আর্থিক সহায়তা করেছি।

এ ছাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবহিত করেছি সরকারি ভাবে সহায়তা করার জন্য।

মিরসরাই ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশনের ষ্টেশন কর্মকর্তা ইমাম হোসেন পাটোয়ারী বলেন, অগ্নিকাÐের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হই। ধারণা করা যাচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। আগুনে ৫ জনের বসতঘর ও রান্না ঘর পুড়ে গেছে।