মিজানুর রহমান মিজান, রংপুর অফিস : মাদককারবারির ছুরিকাঘাতে রংপুর হারাগাছ থানা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) পিয়ারুল ইসলাম গুরুতর আহত হয়ে রমেক হাসপাতালে নিবিড় পর্যবেক্ষণে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে মারা গেছেন।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) মহানগরীর মেট্রোপলিটন হারাগাছ থানাধীন সাহেবগঞ্জ এলাকায় মাদক ব্যবসায়ীকে ধরতে গিয়ে আজ শনিবার ভোড় রাতে মাদক কারবারি ছুরিকাঘাতের শিকার হয়েছেন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ শনিবার সাড়ে এগারোটার দিকে তার মূত্যু হয়।

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার ভোররাতে গোপন খবরের ভিত্তিতে সাহেবগঞ্জ এলাকা থেকে পলাশ নামের এক মাদক কারবারিকে গাঁজাসহ আটক করেন পিয়ারুল ইসলাম। এ সময় মাদক কারবারি পলাশ তার কাছে থাকা ছুরি দিয়ে পিয়ারুলের বুকে আঘাত করেন। এতে গুরুতর আহত হন তিনি। পরে দ্রুত তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে অস্ত্রোপচারের পর আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

হারাগাছ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শওকত সরকার জানান, গুরুতর আহত অবস্থায় এএসআই পিয়ারুলকে রংপুর মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। রাতেই অস্ত্রোপচারের পর আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায়  তার মৃত্যু হয়।

মাদক কারবারি পলাশকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে।