শনিবার সকালে পশ্চিমবঙ্গের জীবনতলা আশ্রয় কেন্দ্রে জেলেদের মাঝে মিষ্টি ও ফল বিতরণ করেন পশ্চিমবঙ্গ মতস্যজীবি সমিতির নেতৃবৃন্দ

শেখ মোহাম্মদ আলী, সুন্দরবন অঞ্চল প্রতিনিধি : শারদীয় দূর্গাউৎসব উপলক্ষে ভারতের বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে ঠাঁই হওয়া বাংলাদেশী জেলেদের মাঝে মিষ্টি ও ফল বিতরণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

ওয়েস্ট বেঙ্গল ইউনাইটেড ফিসারমেন এসোসিয়েশনের সেক্রেটারি জয় কৃষ্ণ হালদার শনিবার সকালে মোবাইল ফোনে জানান, গত প্রায় দুই মাস যাবত পশ্চিমবঙ্গের তিনটি আশ্রয় কেন্দ্রে বাংলাদেশের ভাসমান ৯০ জেলে অবস্থান করছে। শারদীয় দূর্গা উৎসবের আনন্দ ভাগাভাগি করার জন্য গত দুই দিন কাকদ্বীপ, কুলতলি ও জীবনতলার মৌখালীতে আশ্রয় কেন্দ্রে থাকা জেলেদের মাঝে ফল ও মিস্টি সহ উন্নত মানের খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

প্রশাসনের পাশাপাশি ওয়েস্ট বেঙ্গল ইউনাইটেড ফিসারমেন এসোসিয়েশন, কাকদ্বীপ ফিসারমেন এসোসিয়েশন ও সাউথ সুন্দরবন ফিসারমেন ওয়ার্কার্স ইউনিয়ন বাংলাদেশের এ সকল জেলেদের দেখভাল করছেন।

গত ২০ আগস্ট বঙ্গোপসাগরে ঝড়ের কবলে পড়ে বাংলাদেশের অনেক ফিশিংবোট সাগরে ডুবে যায়। ডুবে যাওয়া ফিশিংবোটের ৯০ জেলেকে ভারতীয় জেলেরা সেদেশের জলসীমায় ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করে কাকদ্বীপে নিয়ে যায় বলে ওয়েস্ট বেঙ্গল ইউনাইটেড ফিসারমেন এসোসিয়েশনের সেক্রেটারি জানিয়েছেন।