ভান্ডারিয়া প্রতিনিধি : পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার গৌরীপুর ইউনিয়নের চড়াইল দারুসসুন্নাত খানকায়ে নেছারীয়া দীনিয়া কমপ্লেক্সের শিক্ষার্থীদের এখন পাঠদান দেয়া হচ্ছে খোলা আকাশের নীচে।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, গত ২৭ মে শুক্রবার দুপুরে কালবৈশাখী ঘূর্ণি ঝড়ে প্রায় দেড়‘শ ফুট লাম্বা টিনসেট মাদ্রাসার ঘরটি সম্পর্ণ বিধ্বস্ত হয়ে যায়। ওই মাদ্রাসার শ্রেনি কক্ষের অভাবে শিক্ষার্থীদের পাঠদান বন্ধ হয়ে পড়ে। ফলে নিরুপায় হয়ে শিক্ষকরা কোন মতে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের নিয়ে রোধ বৃষ্টি উপেক্ষা করে খোলা আকাশের নীচে পাঠদান চালিয়ে যাচ্ছেন।

মাদ্রাসার সভাপতি নুর আলম জানান, ৮ শিক্ষক ও ৩৫০ জন এতিম দরিদ্র ও অসহায় শিক্ষার্থী নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত সুনামের সহিত ধর্মিয় ও আধুনিক শিক্ষা সমন্বয়ে গঠিত এই মাদ্রাসাটি সম্প্রতি ঘূর্ণিঝড়ে ভেঙে যাওয়ায় শিক্ষা কার্যক্রম বেহাল দশায় পড়েছে। সরকারি বা বেসরকারি ভাবে একটি পাকা ভবন তৈরি হলে শিক্ষার্থীদের পুনুরায় পাঠদান দেয়া সম্ভব হবে।