নিউ ইয়র্ক ভিত্তিক ফাইন্যান্সিয়াল অ্যালায়েন্স ফর উইমেন থেকে ডেটা চ্যাম্পিয়ন অ্যাওয়ার্ড জিতেছে নিয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক।

ব্র্যাক ব্যাংক এ নিয়ে পঞ্চমবারের মতো ফাইন্যান্সিয়াল অ্যালায়েন্স ফর উইমেন-এর চ্যাম্পিয়নিং দ্য ফিমেল ইকোনমি অ্যাওয়ার্ড-এ সম্মানা পেল।

ব্র্যাক ব্যাংক-এর পূর্ণাঙ্গ নারী ব্যাংকিং সেগমেন্ট ‘তারা’-এর মাধ্যমে ডেটা ব্যবহার করে নারীদের ব্যাংকিং প্রয়োজন উপলব্ধি করে সে অনুযায়ী সেবা প্রদানের জন্য মর্যাদাপূর্ণ এ পুরস্কার জিতেছে ব্র্যাক ব্যাংক। ব্র্যাক ব্যাংক-এর লিঙ্গ পৃথকীকৃত ডেটা অনুশীলনের প্রশংসা করেছে ফাইন্যান্সিয়াল অ্যালায়েন্স ফর উইমেন, যা মূলত কীভাবে এবং কোথায় নারীদের অগ্রাধিকার দেওয়া এবং সহায়তা করা উচিত সে সম্পর্কে ব্যাংককে বিশদ ধারণা প্রদান করে।

সকল ক্ষেত্রে নারীদের আর্থিক স্বাধীনতা এবং ক্ষমতায়নের উপর গুরুত্ব প্রদানকারী বিশেষায়িত নারী ব্যাংকিং সেবা ‘তারা’-এর জন্য ফাইন্যান্সিয়াল অ্যালায়েন্স ফর উইমেন থেকে এ আগেও বেশ কয়েকটি পুরস্কার জিতেছে ব্র্যাক ব্যাংক।

২ নভেম্বর ২০২২ যুক্তরাজ্যের লন্ডনে অনুষ্ঠিত ‘২০২২ অ্যানুয়াল সামিট’-এর ‘চ্যাম্পিয়নিং দ্য ফিমেল ইকোনমি অ্যাওয়ার্ডস’-এ আনুষ্ঠানিকভাবে এই পুরস্কার ঘোষণা করা হয়।

প্রতিষ্ঠার পর থেকেই সমাজের সকল স্তরের নারীদের নিবেদিত ব্যাংকিং সেবা প্রদান করে আসছে ব্র্যাক ব্যাংক ‘তারা’। নারীদের সম্ভাবনা পূর্ণ বাস্তবায়নে সহায়তা করছে । ‘তারা’ নারীদের স্বপ্ন পূরণের সাথী হিসেবে বাংলাদেশে সুনাম অর্জন করেছে।

আন্তর্জাতিক এ পুরস্কার অর্জন সম্পর্কে ব্র্যাক ব্যাংক-এর হেড অব রিটেইল ব্যাংকিং মোঃ মাহীয়ুল ইসলাম বলেন, “ফাইন্যান্সিয়াল অ্যালায়েন্স ফর উইমেন থেকে ডেটা চ্যাম্পিয়ন পুরস্কার পেয়ে আমরা অত্যন্ত সম্মানিত বোধ করছি। এটা গর্বের বিষয় যে, বাংলাদেশের একমাত্র ব্যাংক হিসেবে ব্র্যাক ব্যাংক এই পুরস্কার পেয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি, এই মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার আমাদের প্রতি গ্রাহকদের আস্থা আরও বাড়িয়ে তুলবে। নারী গ্রাহকদের আরও উন্নত সেবা প্রদানের লক্ষ্যে আমরা ডেটার ব্যবহার কাজে লাগিয়ে যাবো। একটি মূল্যবোধ-ভিত্তিক ব্যাংক হিসেবে, অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজ গঠনে নারীদের জন্য সুযোগ তৈরি করতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।”

ব্র্যাক ব্যাংক হলো ফাইন্যান্সিয়াল অ্যালায়েন্স ফর উইমেন-এর একমাত্র বাংলাদেশি সদস্য ব্যাংক। ২০০০ সালে প্রতিষ্ঠিত জোটটির সদর দপ্তর নিউ ইয়র্কে অবস্থিত। এটি বিশ্বব্যাপী নারীদের ব্যাংকিং প্রচারণার লক্ষ্যে জ্ঞান বিনিময়, সক্ষমতা বৃদ্ধি এবং গবেষণার জন্য কাজ করে। নারী অর্থনীতিকে সম্পূর্ণভাবে সমৃদ্ধ করে তোলার লক্ষ্যে, ১৩৫টিরও বেশি দেশের সদস্যদের একটি অনন্য নেটওয়ার্ক হিসেবে কাজ করে ফোরামটি। – বিজ্ঞপ্তি