ছাত্রদল নেতা নয়ন হত্যা  

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের গুলিতে নিহতের অভিযোগে পুলিশ সুপারসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলার আবেদন করেছেন নিহত ছাত্রদল নেতা নয়ন মিয়ার বাবা। বুধবার (২৩ নভেম্বর) ব্রাহ্মণবাড়িয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার আবেদন করা হয়।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী আরিফুল হক মাসুদ জানান, আদালতে মামলার আবেদন জমা দেওয়া হয়েছে। আদালত মামলার বিষয়ে পর পরবর্তীতে আদেশ দিবেন।

এই মামলায় প্রধান আসামী করা হয়েছে বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার পুলিশ কনস্টেবল বিশ্বজিৎ বিশ্বাসকে।

এ ছাড়াও কনস্টেবল শফিকুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নূরে আলম, ওসি তদন্ত তরুণ দে, এসআই আফজাল হোসেন খান, এসআই বিকিরণ চাকমা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোজাম্মেল হোসেন রেজা ও পুলিশ সুপার আনিসুর রহমানসহ আরও অজ্ঞাত ৮/১০কে আসামী করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, শনিবার (১৯ নভেম্বর) বিকেলে আগামী ২৬ নভেম্বর বিএনপির কুমিল্লা বিভাগীয় মহাসমাবেশ সফল করতে লিফলেট বিতরণকালে বিএনপির নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ সময় উপজেলার সোনারামপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সহ সভাপতি মো. নয়ন মিয়া গুলিবিদ্ধ হয়। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে মারা যান। এই ঘটনায় গুরুতর আহত হয় বাঞ্ছারামপুর পৌর যুবদলের আহ্বায়ক ইমান আলি। পাশাপাশি ৬জন পুলিশ সদস্য আহত হওয়ার দাবি করেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা।