সাইমুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম : মুজিববর্ষ উপলক্ষে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়ী দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যাচ ভিত্তিক ফুটবল টুর্নামেন্টের সিজন-১ এর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় জমকালো আয়োজনের মধ্যদিয়ে কাঁঠালবাড়ী দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়। ফাইনালে আসা দুই দলেই ব্যান্ড পার্টির মাধ্যমে মাঠে প্রবেশ করেন।

ফাইনালে আসা দুই দলেই প্রথম রাউন্ডে রানার্সআপ হয়ে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করেন। দ্বিতীয় রাউন্ডের তৃতীয় কোয়াটার ফাইনাল ম্যাচে ব্যাচ-৮ ব্যাচ-২১কে পরাজিত করে ২-১ গোলে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে।সেমিফাইনালে ব্যাচ-১১কে ২-০ গোলে পরাজিত করে ফাইনাল নিশ্চিত করে ব্যাচ-৮।

অপরদিকে ব্যাচ-২০ কোয়াটার ফাইনালে ব্যাচ-১৬কে টাইব্রেকারে ২-৩ গোলে পরাজিত করে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে। সেমিফাইনালে ব্যাচ-১৩কে ট্রাইব্রেকারে ৪-৫ গোলে পরাজিত করে ফাইনাল নিশ্চিত করে ব্যাচ-২০।

ফাইনালে ব্যাচ-২০ ও ব্যাচ-৮ এর মধ্যে প্রতিযোগিতামুলক খেলায় ব্যাচ-২০ ৩-০ গোলে জয় লাভ করে। ব্যাচ-২০ এর হয়ে দলের জন্য ১৮ মিনিটে প্রথম গোলটি করেন ২২ নাম্বার জার্সি ধারি আশিকুর রহমান আশিক। দুই মিনিট পরেই দলের জন্য দ্বিতীয় গোলটি করেন ২৩ নাম্বার জার্সি ধারি আব্দুল মজিদ। ফাইনাল ম্যাচের প্রথমার্ধে ২-০ ব্যবধানে পিছিয়ে থাকে ব্যাচ-৮। দ্বিতীয়ার্ধে ব্যাচ-২০ এর আক্রমণে ব্যাচ-৮ এর রক্ষণ ভাগ অনেকাংশে দুর্বল হয়ে পড়েছে। দ্বিতীয়ার্ধে দলের জন্য তৃতীয় গোলটি ছিনিয় আনেন ব্যাচ-২০ এর ক্যাপ্টেন সিফাত।

ফাইনাল ম্যাচে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সেরা কয়েকজনকে পুরস্কৃত করা হয়। ফাইনালে ম্যান অব দ্য ম্যাচ ব্যাচ-২০ এর আশিক (ব্যাচ-২০), ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট সাদেকুল (ব্যাচ-৮), সেরা অধিনায়ক আরমান (ব্যাচ-১৭), সেরা গোল রুবেল (ব্যাচ-১১), সেরা গোল রক্ষক শাকিল (ব্যাচ-২০), উদীয়মান খেলোয়াড় শাহিন (ব্যাচ-২১)।

ফাইনাল ম্যাচে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রেদওয়ানুল হক দুলাল, বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন সৈয়দ মাহবুব আল হোসাইন, মো: আইয়ুব আলী ব্যাপারী, ছাত্রনেতা আবু সাইদ তাজুল, সহকারী শিক্ষক শফিকুল ইসলাম শফি, ফাইনাল ম্যাচের সভাপতিত্ব করেন জেলা পরিষদের সদস্য ও বিদ্যালয় গভর্নিং বডির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হক ব্যাপারী।

ব্যাচ ভিত্তিক টুর্নামেন্টের আহবায়ক আসাদুল হক ফিরোজ বলেন, “আয়োজন সফলভাবে শেষ করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানাই। প্রতি বছর ব্যাচ টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হবে।”