আমজাদ হোসেন, নরসিংদী প্রতিনিধি : নরসিংদীর বেলাব উপজেলায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে সুস্বাদু ও সুগন্ধিযুক্ত কলম্বো লেবুর আবাদ। দেশের সীমানা ছাড়িয়ে মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোতে কদর বাড়ছে এ সুগন্ধি কলম্বো লেবুর। অর্থনৈতিকভাবে লাভজনক হওয়ায় উপজেলায় বাণিজ্যিকভাবে শুরু হয়েছে কলম্বো লেবুর আবাদ।

বর্তমানে বেলাব উপজেলার ১৭৯ হেক্টর জমিতে ৬০০টি বাগানে বাণিজ্যিকভাবে কলম্বো লেবুর আবাদ হচ্ছে। এর মধ্যে ২৭০টি নতুন এবং ৩৩০টি পুরাতন বাগান। এসব বাগান থেকে উৎপাদিত কলম্বো লেবু দেশের চাহিদা মিটিয়ে মধ্য প্রাচ্যসহ ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশে রফতানি হচ্ছে। গত অর্থ বছরে প্রায় ৫০০ টন লেবু রফতানি হয়েছে বলে বেলাব কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়।

নরসিংদী কৃষি বিভাগের তথ্যমতে, বছর পনের আগে নরসিংদীর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়, এখানকার মাটি লেবু চাষের উপযোগী। এরপর জেলার কয়েকজন কৃষক প্রাথমিকভাবে স্বাদ ও সুগন্ধিযুক্ত কলম্বো লেবুর আবাদ শুরু করে আশানুরূপ ফলনও পান। পরবর্তী সময়ে ২০১১-১২ অর্থবছরে জেলার শিবপুর, রায়পুরা, বেলাব ও মনোহরদীতে ব্যাপকভাবে লেবু চাষের কর্মসূচি গ্রহণ করে কৃষি বিভাগ। বর্তমানে বিদেশে রফতানিকৃত লেবুর মোট ৮০ শতাংশই নরসিংদী থেকে যাচ্ছে।

জানা যায় এক সময় সিলেটের জারা লেবুতে ক্যাঙ্কার নামক এক প্রকার রোগ দেখা দেয়ায় তখন বাংলাদেশ থেকে লেবু রফতানি বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে গত ২০১২ সালের ১১ মার্চ বিমানবন্দরের একজন কর্মকর্তা এসে এখানকার লেবুর তথ্য সংগ্রহ করেন এবং কোনো রকম রোগ বালাই না থাকায় এবং স্বাদে, গন্ধে ও দেখতে সুন্দর হওয়ায় বর্তমানে কলম্বো লেবু ইউরোপে রফতানিতে কোনো বাধা নেই বলে উল্লেখ করেন। ফলে পুনরায় শুরু হয় লেবু রফতানির কার্যক্রম। লেবু রফতানির ফলে অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হচ্ছেন সংশ্লিষ্ট এলাকার কৃষকেরা।

বেলাব উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাজিম উর রফ খান জানান, সরকারিভাবে রফতানিযোগ্য লেবু কর্মসূচির আওতায় ৪৫০ জন লেবু চাষি, ২২ জন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাকে বিভিন্ন মেয়াদে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, দেশ-বিদেশে চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ায় এখানকার কৃষকেরা এই লেবু চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন। এই বছর বেলাবতে ২৭০টি কলম্বো লেবুর নতুন বাগন করা হয়েছে। এ ছাড়া পুরনো ৩৩০টি বাগানও নতুনভাবে পরিচর্চা করা হচ্ছে। এসব বাগান ছাড়াও অসংখ্য ক্ষুদ্র বাগান রয়েছে। এসব বাগান থেকে মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপিয়ন ইউনিয়নভুক্ত দেশে যাচ্ছে কলম্বো লেবু। লাভজনক হওয়ায় স্থানীয় বেকার যুবকেরাও এ লেবু চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছে।

বেলাব উপজেলার নারায়নপুর ইউনিয়নের পুটিমারা গ্রাামের আ: মজিদ জানান, সে প্রথমে ১ বিঘা জমিতে লেবু আবাদ শুরু করে। লাভ জনক হওয়ায় বর্তমানে সে সাড়ে বিঘা জমিতে ৪শত লেবুচারা আবাদ করেছেন। এসব জমি থেকে উৎপাদিত লেবু বছরে ৪-৫ লক্ষ টাকা বিক্রি করতে পারেন। একই গ্রামের আরেক লেবু চাষি আ: খালেক জানান তার সে ২ বিঘা জমিতে ১৭০টি লেবুগাছ আবাদ করেছেন। যা থেকে তিনি বছরে প্রায় ৪ লক্ষ টাকা বিক্রি করেন।

স্থানীয়রা জানায়, লেবু বাগানগুলো থেকে রফতানিকারকদের নিয়োজিত লোকেরা এসে লেবু কিনে নিয়ে সরবরাহ করেন দেশ-বিদেশের বাজারগুলোতে।

রোগমুক্ত লেবু উৎপাদনের মাধ্যমে, বিদেশে কলম্বো লেবুর বাজার ধরে রাখতে, কৃষি বিভাগের সহযোগিতা কামনা করছেন উপজেলার লেবুচাষীরা।