মিজানুর রহমান মিজান, রংপুর অফিস : বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় রংপুরের স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তির জন্য একটি প্রতারক চক্র সক্রিয় হয়ে উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে জালিয়াতি করে ভর্তির প্রলোভন দেওয়ায় থানায় অভিযোগ জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

রোববার (২ জানুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর গোলাম রব্বানী জানান, মহানগরের তাজহাট থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এরই মধ্যে গতকাল শনিবার (১ জানুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে একটি চক্র জালিয়াতির মাধ্যমে ভর্তির প্রলোভন দিচ্ছে বলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নজরে এসেছে।

অভিযোগে আরও বলা হয়েছে, কোনো একটি অসাধু চক্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির বিষয়ে ভুয়া তথ্য সরবরাহ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্নসহ প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার পাঁয়তারা করছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সকালে ‘brur চান্স ১০০% করে দিব’ নামের গ্রুপ থেকে একটি বার্তা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে শেয়ার করা হয়। ওই বার্তায় বলা হয়, ‘যারা বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পায়নি, তাদের চান্স পেয়ে দেব। এতে খরচ হবে ২০ হাজার টাকা। অগ্রিম প্রেমেন্ট করতে হবে ৮৫০ টাকা।

গতকাল দুপুরে একই গ্রুপ থেকে আরেকটি বার্তা শেয়ার করা হয়। সেখানে লেখা ছিল, ‘যারা রেজাল্ট চেঞ্জ করার জন্য ৮৫০ টাকা দিয়েছেন তাদের রেজাল্ট চেঞ্জ হয়েছে। বিকেল ৫টার সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে রেজাল্ট পাবেন। বাকি টাকা ভর্তির পর দেবেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ তথ্য ও প্রকাশনা বিভাগের কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ‘যে মুঠোফোন নম্বর দিয়ে জালিয়াতি গ্রুপের অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে, তা সার্চ দিয়ে “DU Admission” সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি-সংক্রান্ত প্রতারক চক্র এই কাজটি করেছে বলে আমাদের ধারণা। এ ঘটনায় তাজহাট থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে।

মোহাম্মদ আলী আরও বলেন, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে ভর্তি হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। মেধাতালিকা থেকেই যথাযথ নিয়ম অনুসারে ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

গত ৩১ ডিসেম্বর রাত একটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির প্রথম মেধাতালিকা প্রকাশ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তালিকা ও ভর্তি বিজ্ঞপ্তি থেকে প্রাপ্ত তথ্যমতে, জিএসটি গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রথম মেধাতালিকা প্রকাশ করা হয়। বিভাগগুলোতে আসন খালি থাকা সাপেক্ষে ১১ জানুয়ারি দ্বিতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে।

তাজহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতারুজ্জামান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন মোহাম্মদ আলী, বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ তথ্য ও প্রকাশনা বিভাগের কর্মকর্তা এ ব্যাপারে থানায় একটি অভিযোগ করেছে। বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে।