জাকির হোসেন, পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) : কেমন আছেন ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার বৃক্ষ মানবখ্যাত রিপন। এমনিতে তাদের খোঁজ কেউ তেমন একটা রাখে না, কিভাবে কাটছে তার জীবন কয়েক বছরের মধ্যে তারা কি পেয়েছে সরকারি ও বেসরকারি কোন সহায়তা? কেউ কী তার পরিবারের খোঁজ নিয়েছে এমন প্রশ্ন বৃক্ষমানব খ্যাত শিশু রিপনের পরিবারের।

আমার হাতে-পায়ে অনেক ব্যথা, আমি স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে পারি না। আমি সুস্থ হতে চাই। আমি সুস্থ হতে কি পারব? এভাবেই সুস্থ হওয়ার ইচ্ছা পোষণ করে হাজারো প্রশ্ন ঠাকুরগাঁওয়ের বৃক্ষমানব শিশু রিপনের।

বর্তমানে শিকড়ের মত গজিয়ে আবারো দু হাত ও পা হয়েছে আগের মতো। এই দুই হাত দিয়েই করছে রিপন যাবতীয় কাজ। প্রায় ৪ বছর আগে ২০১৮ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিট থেকে চিকিৎসা নিয়ে নিজ গ্রাম ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে ফেরেন রিপন। সেখানে তিনটি অপারেশন করার পর কিছুটা সুস্থ হন।

কিন্তু দীর্ঘ ৪ বছর আগে নিজ বাড়িতে এসে টাকার অভাবে চিকিৎসা বন্ধ হওয়ায় বর্তমানে দিন দিন খারাপ হচ্ছে তার শরীর। বর্তমানে হাত ও পায়ের ব্যথায় কাতরাচ্ছে সে।

রিপনের ভ্যানচালক বাবা মহেন্দ্র নাথের সামান্য উপার্জনে রিপনের ৫ সদস্যের পরিবার চলছে খুব কষ্টে। অভাবের কারণে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে ধরনা দিয়েও পায়নি কোন প্রকার আর্থিক সহায়তা।

রিপনের মা গোলাপী রাণী বলেন, ৪ বছর আগে ডাক্তারকে দেখিয়েছি অপারেশন হয়েছে কিন্তু সুস্থ হওয়ার নাম নাই। ডাক্তাররা বলেছেন, ঢাকা বা ভারত নিয়ে যেতে। কিন্তু আমার তো টাকা নেই, কীভাবে ছেলের চিকিৎসা করাব?

রিপনের বাবা ভ্যানচালক মহেন্দ্রনাথ বলেন, সকলের সহযোগিতা পেলে আমার ছেলের চিকিৎসা হতো। আবার আমার ছেলেকে অপারেশন করতে পারবো।

এ ব্যাপারে ৮নং দৌলতপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সনাতন চন্দ্র রায় বলেন, আমরা যতদূর পেরেছি সহযোগিতা করেছি। বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান করছি। আর্থিক সহায়তা পেলে আবার তার চিকিৎসা হবে।

প্রসঙ্গত ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার কেটগাঁও গ্রামে গত ২০১৮ সালে সাত বছর বয়সী এক শিশুর হাত ও পায়ে গাছের শাখা-প্রশাখার মতো আঁচিল দেখা যায়। ‘ট্রি ম্যান সিনড্রোম’ বা ‘বৃক্ষ মানব’ রোগ নামে আক্রান্ত ওই শিশুর পরিবার আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল হওয়ায় বিভিন্ন ভাবে সকলের সহযোগিতায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছিল।

বৃক্ষ মানবখ্যাত রিপন পীরগঞ্জ উপজেলার কেটগাঁও গ্রামের মহেন্দ্র রায়ের ছেলে । জন্মের তিন মাস পর থেকে এ রোগে আক্রান্ত রিপন।