বগুড়া প্রতিনিধি : বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তরের আহবায়ক ও ডাকসুর সাবেক ভিপি আমান উল্লাহ আমান বলেছেন ২০২২ সালকে শেখ হাসিনার পতনের সাল।

নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠার জন্য ২০২২ সাল পরিবর্তনের সাল, ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার সাল, গনতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠার সাল, খালেদা জিয়ার মুক্তির সাল, তারেক রহমানের দেশে ফেরার সাল।

গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার জন্য, হাসিনার পতনের জন্য, ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য, খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য, তারেক রহমানকে ফিরিয়ে আনার জন্য এবার গুলি বুকে যাবে, গুলি নেয়ার জন্য সকলকে প্রস্তুত থাকতে হবে। কারণ মৃত্যু মানুষের একবারই হয়। তারেক রহমানের নেতৃত্বে এ বছরই গণঅভ্যুত্থান হবে। এ ক্ষেত্রে ছাত্রদলকে সামনে এগিয়ে আসতে হবে।

আমান এ সময় উপস্থিত দলের নেতাকর্মীদের সরকার পতনে যেকোন ত্যাগ স্বীকারের জন্য দু’হাত তুলে শপথ পড়ান।

তিনি আজ রোববার দুপুরে বগুড়ায় ছাত্রসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কথাগুলো বলেন। ছাত্রদলের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বগুড়া জেলা ছাত্রদলের উদ্যোগে শহরের শহীদ টিটু মিলনায়তনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের জেলা সভাপতি আবু হাসানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী রিগ্যানের সঞ্চালনায় এতে প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা বিএনপির আহবায়ক ও পৌর মেয়র রেজাউল করিম বাদশা, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক এমপি মোশারফ হোসেন, সাইফুল ইসলাম, ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, বিএনপি নেতা আলী আজগর হেনা, এম আর ইসলাম স্বাধীন, আলী হায়দার তোতা, হামিদুল হক চৌধুরী হিরু, তাহা উদ্দিন নাহিন, সহিদ উন নবী সালাম, খাদেমুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আলম, সাজিদ হোসেন বাবু, আজিজুল হক প্রমুখ। এর আগে প্রতিটি সাংগাঠনিক থানা শাখার নেতাকর্মীরা মিছিল সহকারে সমাবেশে যোগ দেন।