সফিয়ার রহমান রতন, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি : নীলফামারীর ডোমারে লিপন রায় নামে এক প্রেমিকের বাড়ীতে বিয়ের স্বীকৃতির দাবীতে গত তিন দিন ধরে অবস্থান করছেন আখিঁ অধিকারী নামে এক কলেজ ছাত্রী।

লিপন রায় ডোমার উপজেলার বোড়াগাড়ী ইউনিয়নের নয়ানী বাকডোকরা বাবুপাড়ার বাবু ভূপেশ চন্দ্র রায়ের ছেলে এবং অবস্থানকারী কলেজ ছাত্রী নীলফামারী সরকারী কলেজের অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্রী ও সদর উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের খালিশাপচাঁ মাষ্টারপাড়ার মহেন অধিকারীর মেয়ে।

আখিঁ অধিকারী সংবাদ কর্মীদের জানান, দীর্ঘ ৬ বছর পূর্বে নিকট আত্মীয়ের মাধ্যমে লিপনের সাথে পরিচয় হয়। পরিচয় সূত্রে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। প্রেমের সুবাদে গত দুই বছর পূর্বে জগন্নাথ বিশ্ব বিদ্যালয়ের পার্শ্বের জগন্নাথ মন্দিরে সনাতন ধর্মমতে আমরা বিয়ে করি। বিয়ের পর লিপনের এক পরিচিত আত্বীয়ের বাসায় স্বামী স্ত্রী পরিচয়ে কয়েকদিন অবস্থান করি।

সেখানে লিপন রায় নিজে উপার্জনশীল না হওয়া পর্যন্ত বিয়ের বিষয় গোপন রাখার অনুরোধ করেন। লিপনের কথামতো আমি বিয়ের বিষয় গোপন রাখি ও নিজ নিজ বাড়িতে ফিরে আসি। কিন্তু এক সপ্তাহ ধরে লিপন আমার সাথে যোগাযোগ রাখছে না। তাই গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় লিপনের বাড়ীতে আসি ও তার পরিবারকে আমাদের প্রেম ও বিয়ের ব্যাপারে জানাই।

এ ব্যাপারে লিপন রায়ের বাবা বাবু ভূপেশ চন্দ্র রায় বলেন, মেয়েটি গত তিনদিন ধরে আমার বাড়ীতে আছে। শুনতেছি তাকে আমার ছেলে বিয়ে করেছে। বিষয়টি সুরাহ করার জন্যে মেয়ের বাড়ীতে আমার কয়েকজন আত্মীয়কে পাঠিয়েছি।

বোড়াগাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম রিমুন জানান, বিশেষ কাজে ঢাকায় আছি। বিয়ের দাবীতে কলেজ ছাত্রীর অবস্থান করার কথা শুনেছি। উভয় পক্ষ বসে যেটা ভালো হয় সেই সমাধান করা উচিৎ বলে আমি মনে করি।